দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত চক্রের ৭ সদস্য আটক

|

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের ভাওয়াল জাতীয় উদ্যানের ৪ নং গেইট এলাকা থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ ডাকাত চক্রের ৭ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব।

গেল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের আটক করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ডাকাতদের হামলায় আহত কাভার্ডভ্যান চালক আব্দুল কালাম ও হেলপার এবং লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, সিটি কর্পোরেশনের ভাওরাইদ এলাকার ইন্তাজ আলী রাজু, একই এলাকার মো. আরিফ হোসেন, দিঘীর চালা এলাকার মো. আল আমিন হুসাইন, একই এলাকার সাজ্জাদ হোসেন ওরফে সজিব, মো. জাকির হোসাইন, সোহাগ মিয়া ও মো. শাকিল মিয়া।

র‌্যাব-১ এর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গেল বৃহস্পতিবার রাতে ভাওয়াল জাতীয় উদ্যানের ভেতর একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল কাভার্ডভ্যান থামিয়ে ড্রাইভারকে গাছের সাথে বেধে রেখে মারধর করে গাড়ীর মালামাল লুঠ করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ এর একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এসময় ওই পার্কের ৪নং গেইট এলাকায় গভীর বনের ভেতর অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত ডাকাতদের আটক করা হয়।

আসামীদের কাছ থেকে ২টি রাম-দা, ৪ টি চাপাতি, ডাকাতির নগদ ১৬ হাজার টাকা এবং ৮ টি মোবাইল ফোনসহ আহত অবস্থায় ভিকটিম ড্রাইভার মো. আব্দুল কালাম এবং হেলপার আহম্মেদ আলীকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত আহত ভিকটিমদ্বয়কে জরুরী চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা স্বীকার করে যে, তারা একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তারা একে অপরের যোগসাজশে আরিফ নীট স্পিন লি. এর ড্রাইভার আব্দুল কালাম কভার্ডভ্যান পরিচালনা নারায়ণগঞ্জ যাওয়ার সময় গাজীপুরের ন্যাশনাল পার্কের ৪নং গেইটের সামনে আসা মাত্রই কাভার্ডভ্যানের গতি রোধ করে গাড়ীসহ ন্যাশনাল পার্কের জঙ্গলের ভেতর নিয়ে যায়। পরে ড্রাইভার আব্দুল কালাম এবং হেলপার আহম্মেদ আলীকে গাছের সাথে বেধে রেখে লোহার চাপাতি দ্বারা শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারধর করে এবং তাদের মুক্তিপণ হিসেবে উক্ত কোম্পানির প্রতিনিধিদের কাছে ৫ লাখ টাকা দাবি করে এবং বিভিন্ন বিকাশ নম্বরে নগদ টাকা হাতিয়ে নেয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা তাদের ডাকাতির কথা স্বীকার করে আরও জানায়, তাদের ডাকাতি কাজে বাধা দিলে অস্ত্র দ্বারা আঘাত করে মালামাল লুট এমনকি মানুষ হত্যা করে আসছে।









Leave a reply