স্বামীর ভালোবাসায় বিরক্ত হয়ে তালাক চাইলেন স্ত্রী

|

অতিরিক্ত ভালোবাসার কারণে স্বামীকে তালাক দিতে চাইছেন এক নারী। অবাক করা হলেও সত্যি এমনটাই ঘটেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে।  এমন খবরই জানাচ্ছে দুবাই ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ‘খালিজ টাইমস’

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরাহ অঞ্চলের শরিয়াহ আদালতে অভিযোগ করে ওই নারী বলেন, স্বামীর এত ভালোবাসা সহ্য করা অসম্ভব।

সেই নারী বলেন, স্বামীর অতিরিক্ত ভালোবাসা আমার সহ্য হয়না। আমি সবসময় তার সাথে একটু ঝগড়া করার জন্য মুখিয়ে থাকি, আমি চাই আমাদের জীবনে একটু বৈচিত্রতা কিন্তু আমার স্বামী আমাকে সে সুযোগ দেয়না। আমার স্বামী সারাক্ষণ আমার সাথে হাসিমুখে কথা বলে থাকে এবং আমার সকল কাজে সহযোগীতা করে, ফলে তার সাথে আমার ঝগড়া করার কোন সুযোগ হয়ে উঠেনা।

সে নারী আরও বলেন, সে সবসময় আমাকে উপহারের বন্যায় ভাসিয়ে রাখে। তাছাড়া সে আমাকে রান্না ও ঘর ঘোছানোর কাজেও সাহায্য করে। আর তার এই ভালোবাসাই আমাকে দমবন্ধ করে তুলেছে।

ওই নারী আরও বলেন তার স্বামী কখনোই তার সঙ্গে ঝগড়া করেন না বা তার কোনো আবদার ফিরিয়ে দেন না। এছাড়াও তার স্বামী তার জন্য রান্নাও করতেন বলে জানান সেই নারী।

তবে ওই নারীর স্বামী দাবি করছেন, তিনি একজন আদর্শ ও সহযোগীতাপূর্ণ স্বামী হতে চান তাই তিনি তার দায়িত্ব পালন করছেন মাত্র। তিনি বলেন, বিয়ের মাত্র প্রথম বছরের মধ্যেই কোন সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক নয় আর মানুষ ভুল থেকেই শিক্ষা গ্রহণ করে।

রিপোর্টে বলা হয়, ওই নারী একবার তার স্বামীকে মোটা হয়ে যাচ্ছেন বললে তার স্বামী ডায়েট ও ব্যায়াম করতে যেয়ে পা ভেঙ্গে ফেলেন।

আদালত ওই নারীর অভিযোগ আমলে নিয়ে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ঠিক করার একটি সুযোগ দিয়ে আদালত মুলতবি করেন বলেও রিপোর্টে জানা যায়।









Leave a reply