১৫ আগস্টের হত্যার মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর অবদান মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিলো: প্রধানমন্ত্রী

|

ছবি: বিবিসি বাংলা

১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে দেশের ইতিহাস, স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুর অবদান মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল। এমন মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক দিবসের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন জিয়াউর রহমান। তার শাসনামলেই দেশে গুম খুনের সংস্কৃতি শুরু হয়েছিল বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শোক দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভার আয়োজন করে ঢাকা মহানগর আওয়াম লীগ। প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৫ আগস্টের স্মৃতিচারনা করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে দেশের ইতিহাস মুছে ফেলার চক্রান্ত হয়েছিল।বঙ্গবন্ধুর খুনীদের পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিলেন জিয়াউর রহমান। খালেদা জিয়াও খুনীদের সংসদে এনে পুরস্কৃত করেছেন বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জিয়াউর রহমানের ক্ষমতা দখলকে উচ্চ আদালত অবৈধ ঘোষনা করেছে, ফলে বিএনপি’র সৃষ্টিও অবৈধ হয়ে যায় বলেও উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। তিনি দাবি করেন, দেশে গুম খুনের সংস্কৃতি শুরু করেছিল বিএনপি ও জিয়াউর রহমান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০১ এ বিএনপি ক্ষমতায় এসে ৭১ এর মত হত্যা নির্যাতন চালিয়েছে। জঙ্গীবাদ, আর্থপাচার’সহ দেশজুড়ে অস্থিরতা চালিয়েছিল বিএনপি। তিনি বলেন, এখন আর কেউ বাংলাদেশকে পিছনের দিকে ঠেলে দিতে পারবে না।









Leave a reply