গাইবান্ধায় গ্যাসের আগুনে দ্বগ্ধ স্বামীর মৃত্যু, স্ত্রী চিকিৎসাধীন

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সদরে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে বাড়িতে আগুন লাগার ঘটনায় দ্বগ্ধ খোকন মিয়া (৫০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এছাড়া আগুনে দ্বগ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন খোকন মিয়ার স্ত্রী জুঁই বেগম (৪৩)।

শনিবার ভোর রাতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান খোকন মিয়া।

খোকন মিয়া গাইবান্ধার সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের রথের বাজার এলাকার মতিয়ার রহমান বাদশার ছেলে।

খোলাহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ সামাদ আজাদ খোকন মিয়ার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আগুনে দ্বগ্ধ খোকন মিয়া ও তার স্ত্রী রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। কিন্তু শনিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন খোকন মিয়া। এছাড়া আগুনে দ্বগ্ধ খোকনের স্ত্রী জুঁই বেগমের অবস্থা আশষ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেছে চিকিৎসক। খোকন মিয়ার লাশ তার নিজ বাড়িতে আনা হয়েছে। বাদ আসর জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

এরআগে, শুক্রবার রাত ২টার দিকে একটি এলপি গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ হয়ে খোকনের বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। আগুনে বাড়ির আসবাবপত্র ও বিভিন্ন মালামাল পুড়ে যায়। এসময় ঘরে ঘুমিয়ে থাকা খোকন ও তার স্ত্রী জুঁই দ্বগ্ধ হন। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিভিয়ে দ্বগ্ধ অবস্থায় স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করেন। পরে রাতেই তাদের ভর্তি করা হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

গাইবান্ধা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক (এডি) আমিরুল ইসলাম জানান, ঘরে থাকা রান্নার কাজে ব্যবহার করা এলপি গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ হয়ে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনে ঘরের খাট, বিছানাপত্র, কাপড়, আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে। খবর পেয়ে দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণ করে দ্বগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় খোকন মিয়া ও তার স্ত্রী জুঁইকে। আগুনে খোকন মিয়ার শরীরের অধিকাংশ ও তার স্ত্রীর শরীরের অন্তত ৩০ শতাংশ পুড়ে যায়।









Leave a reply