শিক্ষকের কিল ঘুসিতে ছাত্রের মৃত্যু, প্রতিবাদে স্কুলে আগুন

|

স্কুলে পড়া পারেনি ছাত্র। এতে সমানে কিল, লাথি, ঘুসি মারে শিক্ষক। এঘটনায় শেষ পর্যন্ত মারাই যায় বেচারা ছাত্র। এদিকে বন্ধুর মৃত্যুতে মাথার ঠিক রাখতে পারেনি সহপাঠীরা। প্রতিবাদে স্কুলে আগুন লাগিয়ে দেয় বন্ধুরা। এঘটনা ঘটেছে পাকিস্তানের লাহোরে।

জানা যায়, পাকিস্তানের বাসিন্দা হাফিজ হুনান বিলাল নামে দশম শ্রেণির ওই ছাত্র আর পাঁচদিনের মতো শনিবারও স্কুলে গিয়েছিল। শিক্ষক পড়া ধরলে বিলাল পড়া বলতে পারেনি। তাতেই বেজায় চটে যান শিক্ষক। বেধড়ক মারধর করতে শুরু করে তাকে। অন্যান্য ছাত্রদের দাবি, বিলালের পেটে ঘুসি মারে শিক্ষক। দেওয়ালে খুব জোরে মাথা ঠুকে দেওয়া হয় তার। পিঠেও কিল মারা হয় ওই ছাত্রটির। পরে বিলাল জ্ঞান হারিয়ে ফেললে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। তবে চিকিৎসকরা জানান, ততক্ষণে সব শেষ হয়ে গিয়েছে। মারা গিয়েছে বিলাল।

বিলালের মৃত্যুর প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ তার সহপাঠীরা স্কুলে আগুন লাগিয়ে দেয় তারা। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বেশ কয়েকজন ছাত্রকে আটক করেছ পুলিশ।









Leave a reply