সাংবাদিকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করলেন ছাত্রলীগ সভাপতি

|

সাংবাদিককে লাঞ্ছনা করার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় টিএসসিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এসে দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। এসময় তার সাথে থাকা ঘটনার অন্যতম অভিযুক্ত সহ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ও দুঃখ প্রকাশ করেন।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি রায়হানুল ইসলাম আবির ও সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিমসহ সাংবাদিক সমিতির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে মধুর ক্যান্টিনের সামনে ছাত্রলীগের দুই সহ সভাপতির মারামারির ঘটনা মোবাইলে ধারণ করার সময় দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নুর হোসেন ইমনকে প্রথমে বাধা দেন জয়। পরে তাকে ছাত্রলীগ সভাপতি নিজের গাড়িতে জোর করে তুলে ক্যাম্পাসের বাইরে নিয়ে যান। গাড়ির ভেতর তিনি ওই সাংবাদিককে ভিডিও ডিলিট করতে বাধ্য করেন।

এদিকে দুঃখ প্রকাশ করে রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন বলেন, আজকে যে ঘটনা ঘটেছে তা অনাকাঙ্ক্ষিত। আজকের ঘটনার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমি অন্য কোন উদ্দেশ্য তাকে গাড়িতে তুলিনি। আমি তাকে সেভ করার জন্য গাড়িতে তুলেছিলাম। আমি সবার কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি এবং ভবিষ্যতে যদি আরো কোন এরকম ঘটনা ঘটে তাহলে এর সুষ্ঠু বিচার করব।

সহ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, এটা দুঃখজনক। আমি আসলে বুঝতে পারিনি। আমার দুই বন্ধুর মধ্যে মারামারি হওয়ার কারণে আমরা খুব ব্যস্ত ছিলাম। এ কারণে হুট করে কি হয়েছে আমি বুঝতে পারিনি। এ ঘটনার জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী । আগামীতে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটবে না।

উল্লেখ্য, এর আগে ডেইলি সানের সাবেক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদককেও লাঞ্ছনা করার অভিযোগ ছিলো শোভনের অনুসারীদের বিপক্ষে। এই ঘটনায় জড়িতদের সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিলো।









Leave a reply