গল্প বানিয়েছেন দুই ছাত্রলীগ নেতা: জাবি উপাচার্য

|

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের চাঁদা দাবি করা নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। জানান, উন্নয়ন কাজ থেকে দাবি করা কমিশন পাবার আশ্বাস না পেয়ে, রীতিমত গল্প ফেঁদে বসেছেন দুই নেতা।

এরআগেও দু’জন ঠিকাদারী কাজ পাবার অনৈতিক দাবি করেন বলে জানান উপাচার্য। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে টাকা দেয়ার বিষয়টিও ভিত্তিহীন বলে দাবি তার।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পে চাঁদা দাবি নিয়ে সমালোচনার মুখে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি আর সাধারণ সম্পাদক। এ নিয়ে চলছে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য। অভিযোগ গেছে প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত।

পুরো বিষয়টি নিয়ে আজ শনিবার সকালে নিজ বাসভবনে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি উপাচার্য ড. ফারজানা ইসলাম। তিনি জানালেন, সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি শোভন আর সাধারণ সম্পাদক রাব্বানী। কুশল বিনিময়ের পর উন্নয়ন প্রকল্প থেকে দাবি করেন কমিশন।

এরআগেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে অসুস্থ অবস্থায় ভর্তি থাকার সময়, অনৈতিক আবদার নিয়ে শোভন-রাব্বানী গিয়েছিলেন, এমন কথাও জানান উপাচার্য।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে এক কোটি ৬০ লাখ টাকা দেয়ার বিষয়টিকে বানানো গল্প বলে মন্তব্য করেন ড. ফারজানা।

উপাচার্য জানান, ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের কর্মকাণ্ড শুনে ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।









Leave a reply