ইসরাইলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চায় ওআইসির সদস্যরা

|

Prime Minister Benjamin Netanyahu delivers a statement to the press regarding implementing Israeli sovereignty over the Jordan Valley and it's Jewish settlements, in Ramat Gan on September 10, 2019. Photo by Hadas Parush/Flash90 *** Local Caption *** בנימין נתניהו ראש הממשלה ריבונות בקעת הירדן בחירות הצהרה לתקשורת

ফিলিস্তিনি অঞ্চলে ইসরাইলের অবৈধ দখল অব্যাহত রাখার নিন্দা জানিয়েছে ইসলামিক সহযোগী সংগঠনের (ওআইসি) সদস্যরা। এ সময় সদস্য দেশগুলোর পক্ষ থেকে ইসরাইলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানানো হয়। খবর আরব নিউজের।

জর্ডান উপত্যাকা দখলের ঘোষণার পর সৌদি আরবের আহ্বানে রোববার এক জরুরি সভার বসে ইসলামী সহযোগী সংগঠন (ওআইসি)।

ওই বৈঠকে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইব্রাহিম আল আসাফ ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি চলমান ইসরাইলের সহিংসতার বিষয়টি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এর দায়দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিতে আহ্বান জানান।

আল-আসাফ বলেন, আমরা বিপজ্জনক উত্তেজনার জন্য ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি নিন্দা জানাচ্ছি।

বৈঠকে ইসরাইলি পদক্ষেপকে অগ্রহণযোগ্য করতে যে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিতে তিনি আহ্বান জানিয়েছেন।

গত ৮ সেপ্টেম্বর ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু পশ্চিম তীরের জর্ডান উপত্যাকে দখল করার ঘোষণায় তাৎক্ষণিক মন্তব্য করেছেন এ মন্ত্রী।

নেতানিয়াহু অঙ্গীকার করেছিলেন, ইসরাইলি নির্বাচনের পর কঠিন হামলা করা হবে। এমন মন্তব্যে নিন্দা জানিয়েছিল পারস্য উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদ, ওআইসি, জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, জর্ডান, তুরস্ক এবং পশ্চিম তীরের ফিলিস্তিনি নেতারা।

বোরবারের ওআইসির জরুরি সভায় সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আল-ওথামীন বলেন, ফিলিস্তিনিদের ঐতিহ্যগত চিহ্ন পরিবর্তন করতে ইসরাইলি চলমান উদ্দেশ্যে আমরা নিন্দা জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, ফিলিন্তিনি জনগণের প্রতি ইসরাইলি আগ্রাসন নীতি শেষ করার জন্য আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আহ্বান জানাচ্ছি।

ফিলিস্তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি ইসরাইলের ধর্মীয় সহিংসতা নিয়ে দ্বন্দ্বের বিষয়ে বৈঠকে সতর্ক করে দিয়েছেন।

তিনি জর্ডানের উপত্যাকা দখলের ঘোষণাকে কঠিন হুমকি বলে উল্লেখ করেছেন।

আল-মালিকি বলেন, নেতানিয়াহুর জর্ডান উপত্যাকা দখলের ইচ্ছার ঘোষণা আন্তর্জাতিক চুক্তি ও রেজুলেশনের পরিপন্থী।









Leave a reply