মেঘনায় ইলিশের জালে আটকা পড়লো ২২ মহিষ

|

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর হাতিয়া মেঘনা নদীতে ইলিশের জালে আটকা পড়েছে মালিকানা বিহীন ভাসমান ২২ মহিষ।

সোমবার রাতে মহিষগুলো স্থানীয় তিন রাখালের জিম্মায় রাখা হয়। এরআগে বিকালে উপজেলার চরঈশ্বর ইউনিয়নের মাইচ্চা মার্কেট সংলগ্ন মেঘনা নদীতে ইলিশের জালে ভাসমান মহিষগুলো আটকা পড়ে।

নৌকার মালিক শাহজাহান ও জেলেরা জানায়, বিকালে মেঘনা নদীতে নৌকার মাঝি সাইফুল ইসলাম (কালু মাঝি) তার ইলিশের জাল ফেলে, ওই জালে বেশ কিছু ভাসমান মহিষ আটকা পড়ে। পরে নদীতে নৌটহল পুলিশের সহযোগিতায় ২২টি মহিষ জালসহ তীরে এনে উদ্ধার করা হয়।

নলচিরা নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবদুর রহমান ঢালী জানান, উদ্ধার হওয়া মহিষগুলোর জব্দ তালিকা করা হয়েছে। বাচ্চা মহিষ-১০টি, ছেলা মহিষ- ৩টি, সাদাকালো মাদাম মহিষ- ৫টি, কালো মাদাম মহিষ-৩টি, ছেলা মহিষ-১টি সহ মোট ২২টি মহিষ স্থানীয় তিন রাখালের জিম্মায় রাখা হয়েছে।

মহিষগুলোর আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা হবে উল্লেখ করে তিনি আরো জানান, এ সময় টহলকালে নদীতে ৪ হাজার মিটার মালিকানা বিহীন কারেন্ট জালও জব্দ করা হয়।









Leave a reply