যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের অফিস ঘেরাও, অভিযানে র‍্যাব

|

যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের নিকেতনের অফিস ঘেরাও করে অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব। আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার পর এ অভিযানে নামে র‍্যাব।

এর আগে, মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদকে গ্রেফতারের পর জি কে শামীম নাম উঠে আসে। জি কে শামীম অস্ত্রধারী ৬ জন দেহরক্ষী নিয়ে চলাফেরা করেন।

ছোটখাটো মানুষ হলেও শামীমের ক্ষমতার দাপট আকাশসমান। রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় জি কে শামীম প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবেই পরিচিত। গণপূর্ত ভবনের বেশির ভাগ ঠিকাদারি কাজই জি কে শামীম নিয়ন্ত্রণ করেন। বিএনপি-জামায়াত শাসনামলেও গণপূর্তে এই শামীমই ছিলেন ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণকারী ব্যক্তি।

একসময়ের যুবদল নেতা ক্ষমতার পরিবর্তনে হয়ে যান যুবলীগ নেতা। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগের সহ সভাপতিও তিনি।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সন্মানদী ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত মো. আফসার উদ্দিন মাস্টারের ছেলে শামীম। আফসার উদ্দিন মাস্টার ছিলেন হরিহরদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তিন ছেলের মধ্যে জি কে শামীম মেজো।









Leave a reply