বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির পদত্যাগ আন্দোলনে আওয়ামী লীগের সংহতি প্রকাশ

|

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বাবিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে চলমান আন্দোলনের চতুর্থ দিনে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করেছেন।

আজ রোববার দুপুরে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী এমদাদুল হকের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ক্যাম্পাসে এসে সংহতি প্রকাশ করেন।

পরে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী এমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল হামিদ।

জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা মনে করি এটা শিক্ষার্থীদের ন্যায্য আন্দোলন। তাই আমরা তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করতে ক্যাম্পাসে এসেছি। আশা করবো শিক্ষার্থীরা কোন হিংসাত্মক আন্দোলন করবে না। শান্তিপূর্ণভাবে তাদের আন্দোলন করবে।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শেখ রুহুল আমিন, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পৌর মেয়র কাজী লিয়াকত আলী লেকু, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মিটু, জেলা যুব লীগের সভাপতি জি.এম সাহাবউদ্দিন আযম, সাধারণ সম্পাদক এমবি সাইফ, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, টুঙ্গিপাড়া পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ তোজাম্মেল হোসেন টুটুল।

প্রসঙ্গত, গত ১১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গত বুধবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ওই ছাত্রীর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেন। বৃহস্পতিবার থেকে শিক্ষার্থীরা ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতিসহ নানা অভিযোগ এনে তাঁর পদত্যাগের দাবিতে এক দফা আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করেন এবং সে অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা তাদের আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।









Leave a reply