পরিবারের সদস্যদের অচেতন করে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

|

ফেনী প্রতিনিধি
ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের বাদামতলী গ্রামে পরিবারের সদস্যদের অচেতন করে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় সোমবার বিকেলে ধর্ষক আশফাকুল রহমান বাবলাকে আটক করেছে পুলিশ। তার বাড়ি দিনাজপুর জেলার হরিরামপুর আদর্শ গ্রামে। তার বাবার নাম আবদুর রশীদ।
তিনি ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর নানার বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্র জানায়, রবিবার রাত ৮ টার দিকে পরিবারের সকলকে কোমল জাতীয় পানির মধ্যে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে তার (বাবলা) স্ত্রী, স্কুলছাত্রী ও নানা-নানীকে অচেতন করে ফেলে। পরে মধ্যরাতে ঘরে ঢুকে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে এবং ভিডিও ধারণ করে। স্কুলছাত্রী গত কয়েক দিন আগে তার নানার বাড়িতে বেড়াতে আসে। ধর্ষক বাবলা গত কয়েক মাস আগে ওই বাড়িতে ভাড়া বাসা নিয়ে থাকেন। সে সুবাধে ওই পরিবারের লোকজনের সাথে তার ভালো সম্পর্ক গড়ে উঠে। সোমবার সকালে বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন বাবলা খুঁজে বের করে পুলিশে সোপর্দ করে।

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাঈনুল ইসলাম জানান, ধর্ষক বাবলা বিষয়টি স্বীকার করেছেন।









Leave a reply