মানসিক স্বাস্থ্যকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা হিসেবে গণ্য করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

|

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানসিক স্বাস্থ্য ও প্রতিবন্ধীতাকে প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা হিসেবে গণ্য করতে হবে। তাই এ খাতে জাতিসংঘের সদস্য দেশ ও উন্নয়ন অংশীদারদের বিনিয়োগ বাড়ানো জরুরি।

নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে ‘টেকসই সার্বজনীন স্বাস্থ্য সেবা: মানসিক স্বাস্থ্য ও প্রতিবন্ধীতাসহ সমন্বিত প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবা’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য সেবা প্রত্যেকের অধিকার হলেও, অবহেলিত বিপুলসংখ্যক মানুষ। এ অবস্থায়, প্রাথমিক স্বাস্থ্য সেবায় মানসিক স্বাস্থ্য ও প্রতিবন্ধিতা অন্তর্ভুক্তি গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য বিনিয়োগ বাড়াতে জাতিসংঘের সদস্য দেশ ও উন্নয়ন অংশীদারদের প্রতি আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে বাংলাদেশে কমিউনিটি হেলথ ক্লিনিক চালু, প্রতিবন্ধী সুরক্ষা আইন ও মানসিক স্বাস্থ্য আইন প্রণয়নের কথাও তুলে ধরেন তিনি।









Leave a reply