লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার, নেই নজরদারি

|

এখনও লাগামহীন পেঁয়াজের বাজার। নজরদারি না থাকায় বিক্রেতাদের খেয়াল-খুশি মতো উঠানামা করছে দর।

রাজধানীর খুচরা বাজারগুলোতে,এক কেজি দেশি পেঁয়াজের জন্য গুণতে হচ্ছে ১২০ থেকে ১৩০ টাকা। আর ১০০ টাকা নিচে মিলছে না আমদানি করা পেঁয়াজ। যদিও মিশর ও মিয়ানমার থেকে চট্টগ্রামে এসেছে প্রায় ১১শ’ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। বাজারেও ঢুকেছে এর একটি অংশ। এছাড়া আরও দুই হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আজ কক্সবাজারের টেকনাফ বন্দরে আসবে বলে জানানো হয়েছে। খাতুনগঞ্জের পাইকারি বাজারে আমদানিকৃত এসব পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছেন পাইকাররা। তারা জানিয়েছেন, মিশরের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকা কেজি দরে। ৬৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে মিয়ানমারের পেঁয়াজ।

ক্রেতারা বলছেন, গতকালের চেয়ে পেঁয়াজের দাম প্রতি কেজিতে ৭ থেকে ৮ টাকা কমেছে। বাজারে নতুন করে পেঁয়াজ ঢুকলে দাম আরও কমার আশা করছেন তারা।

ব্যবসায়ীরা জানান, স্থানীয় বাজারে দাম বৃদ্ধি পাওয়ায়, রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত। রোববার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারির পর, দেশের বাজারে ঘন্টায় ঘন্টায় দাম বাড়ছে। আগের এলসির বিপরীতেও পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিচ্ছে না ভারতের কাস্টম কর্তৃপক্ষ। এরফলে স্থলবন্দরগুলোতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে অস্বাভাবিক হারে।

এর আগে গত ১৩ সেপ্টেম্বর পেঁয়াজের রফতানি মূল্য ৩ গুণ বাড়িয়ে প্রতি টন ৮৫০ ডলার নির্ধারণ করে ভারত।









Leave a reply