শাবককে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলো ৬ হাতি

|

জলপ্রপাতে ডুবে যাওয়া থেকে একে অপরকে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলো একে একে ৬টি হাতি। এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে থাইল্যান্ডের খাও ইয়াই ন্যাশনাল পার্কে। থাই কর্তৃপক্ষের ধারণা, একটি হস্তিশাবককে বাঁচাতে গিয়েই এই হাতির দলটি মারা পড়েছে। হস্তিশাবকটি পা পিছলে জলপ্রপাতে পড়ে গিয়েছিল। সূত্র: বিবিসি।

মৃত হাতিগুলোর অদূরেই জলপ্রপাতের খাড়া প্রান্ত থেকে আরও দুটি হাতিকে উদ্ধার করেছে থাই কর্তৃপক্ষ। ‘হেলস ফল’ খ্যাত এই জলপ্রপাতে এর আগেও হাতি মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ১৯৯২ সালে জলপ্রপাতটিতে পড়ে গিয়ে ৮ হাতির মৃত্যুর ঘটনা চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল।

ঘটনাটি প্রথম ন্যাশন্যাল পার্ক কর্তৃপক্ষের নজরে আসে যখন একদল হাতি জলপ্রপাতটির পাশের রাস্তা অবরোধ করে দাঁড়িয়ে ছিল। ঘণ্টা তিনেক পর তারা অদূরে ৩টি হাতির মৃতদেহ দেখতে পায়। এরপর খোঁজ মিলে আরও ৫টি হাতির। যার দুটো এখনো বেঁচে আছে। হাতি দুটোকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানান ন্যাশনাল পার্কের প্রধান তত্ত্বাবধায়ক।

ওয়াইল্ড লাইফ ফ্রেন্ডস ফাউন্ডেশন থাইল্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতা এডউইন উইয়েক বলেন, এই হাতিদুটোর জন্য টিকে টাকা খুব কষ্টকর হবে। কারণ নিরাপত্তা ও খাবার খুঁজে পেতে হাতিরা বড় দলে যূথবদ্ধ হয়ে থাকে। তারা একপ্রকার নিঃস্ব হয়ে গেছে বলা চলে।

এ ঘটনায় থাইল্যান্ডের বিভিন্ন স্তরের মানুষকে দুঃখ প্রকাশ করতে দেখা গেছে। উল্লেখ্য, থাইল্যান্ডে প্রায় ৭ হাজার এশিয়ান প্রজাতির হাতি আছে। এর অর্ধেকই বিভিন্ন পার্কে অবরুদ্ধ অবস্থায় বাস করে।









Leave a reply