রোহিঙ্গা সংকট: নিবিড়ভাবে কাজ করবে বাংলাদেশ-তুরস্ক

|

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বাংলাদেশ ও তুরস্ক নিবিড়ভাবে কাজ করে যাবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোহিঙ্গা সংকটসহ দ্বিপাক্ষিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিমও। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যে দুটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর শেষে যৌথ বিবৃতিতে এসব তথ্য জানান দুই প্রধানমন্ত্রী।

বাংলাদেশ ও তুরস্কের সম্পর্ক নিয়ে নানা আলোচনার কারণেই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে গুরুত্ব পায় প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিমের এই সফর। রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে এসে দুদিনের সফরের প্রথম দিন ছিল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মসূচি ঘিরে।

রাষ্ট্রীয় অভ্যর্থনার পর দুই প্রধানমন্ত্রীর একান্ত বৈঠকে আলোচনা হয় দ্বিপাক্ষিক নানা বিষয়ে। চলমান সম্পর্ক আরো এগিয়ে নেয়ার তাগিদ ছিল দুইজনের আলোচনায়।

এরপর দুই দেশের প্রতিনিধি পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নেন দুই প্রধানমন্ত্রী। সেখানে শিল্প বাণিজ্যসহ বিভিন্ন খাত নিয়ে কথা হয় তাদের।

বৈঠক শেষে বাণিজ্য সহযোগিতায় দু’দেশের মধ্যে দুটি সমঝোতা স্মারক সই হয়। গুরুত্ব পায় বাংলাদেশ-তুরস্কের মধ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প- এসএমই এবং শিল্প উৎপাদন, মান নির্ধারণ, সক্ষমতা বৃদ্ধি, অভিজ্ঞতা বিনিময় ও দক্ষতা উন্নয়নসহ নানা বিষয়।

পরে যৌথ বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয় ছাড়াও কথা হয়েছে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে। এছাড়া বিভিন্ন খাতে সহযোগিতা জোরদারের বিষয়েও ইতিবাচক আলোচনার কথা জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ত্যাগের আগে সেখানকার পরিদর্শন বইয়ে স্বাক্ষর করেন তুরস্ক প্রধানমন্ত্রী। এর আগে দিনের শুরুতে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিনালি ইলদিরিম।

সেখান থেকে ফিরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে একটি ক্যান্সার ইউনিটের উদ্বোধন করেন তিনি। পরে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী।

 

যমুনা অনলাইন: টিএফ/কিউএস









Leave a reply