খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তি চায় দুদক

|

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় যুক্তিতর্ক শুনানি শুরু হয়েছে আজ। খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে এদিন শুনানি করেন দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল। ৩২ জন সাক্ষীর আদালতে দেয়া জবানবন্দি থেকে নানা তথ্য প্রমাণ তুলে ধরেন তিনি।

এসম দুদকের আইনজীবী বলেন, আসামির বিরুদ্ধে সব অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। ফলে খালেদা জিয়াসহ অন্য আসামিদের সর্বোচ্চ সাজা হওয়া উচিত।

যুক্তিতর্ক শুনানির জন্য আরও দুদিন ধার্য আছে। শুনানির দিন পর্যন্ত জামিনে থাকার কারণে প্রত্যেক শুনানির দিনই আদালতে যেতে হচ্ছে খালেদা জিয়াকে। আজ মঙ্গলবারও বেলা ১১ টার দিকে বিএনপি নেত্রী আদালতে পৌঁছালে যুক্তিতর্ক শুনানি শুরু করেন দুদকের আইনজীবী।

মামলার অভিযোগ, তদন্ত প্রতিবেদন, বাদিসহ সাক্ষীদের জবানবন্দি ইত্যাদি তুলে ধরেন দুদকের আইনজীবী। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার স্বাক্ষরেই এই মামলার ২ কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে।’

খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে দুর্নীতির দায়ে দোষী করে বক্তব্য দেন আইনজীবী কাজল। এ নিয়ে খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের সাথে দুদকের আইনজীবীর বাদানুবাদ হয়। এসময় কাঠগড়ার সামনের চেয়ারে বসে শুনানি শুনছিলেন খালেদা জিয়া।

 









Leave a reply