হঠাৎ ঝড়ে বিধ্বস্ত বার্সেলোনা

|

লিগের দ্বাদশ দল লেভান্তের সঙ্গে খেলা। ফর্মে থাকা বার্সেলোনা সহজ জয়ই প্রত্যাশা করেছিল। এরমধ্যে, আবার মাঠে ফিরেছেন লিওনেল মেসি ও লুইস সুয়ারেজ। আর গ্রিজমানের তো আছেনই। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হতাশ হয়ে মাঠ ছাড়তে হলো বার্সাকে।

ম্যাচের ৩৮-তম মিনিটে বার্সার হয়ে ৫০০-তম গোল করেন মেসি। গোলটি এসেছে পেনাল্টি থেকে। নেলসন সেমেদোর এনে দেওয়া পেনাল্টি থেকে বাম পায়ের শটে গোল করেছেন মেসি। পেনাল্টি নিখুঁত হলেও সেটি পাওয়া নিয়ে বিতর্ক হতেই পারে। ভিডিও রিপ্লেতে দেখা গেছে, গোলের বিল্ডআপে আঁতোয়ান গ্রিজমান অফসাইডে ছিলেন।

গোলের একটু পরেই চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন লুইস সুয়ারেজ। তার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন কার্লেস পেরেজ। বার্সেলোনার আক্রমণের তিন খেলোয়াড়ই তখন বাঁ পায়ের! এরপর কোনো পক্ষই গোলের ভালো কোনো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ছন্দে থাকা বার্সা। ।

দ্বিতীয়ার্ধে মুহুর্মুহু পাল্টা আক্রমণ গড়ে তোলে লেভান্তে। এই অর্ধে মেসির সাথে অন্য দুই লেফটির পাঁয়ের সমন্বয়টা ভালো হয়নি। ৬১ মিনিটে বার্সার একটি ভুল পাস থেকে বল পান নেমানজা রাজা। সেটি হেডে এগিয়ে দেন বোর্হা মায়োরালের কাছে। সেটি যায় কাম্পানিয়ার কাছে। জোরালো শটে দারুণ গোল আদায় করে নেন কাম্পানিয়া।

তিন মিনিটের মধ্যে দুর্দান্ত এক গোল করে লেভান্তেকে এগিয়ে দিলেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ধারে খেলতে আসা মায়োরাল (২-১)। এরপর চারজন স্ট্রাইকার নিয়ে গোলের শোধের চেষ্টায় নামে বার্সা। কিন্তু ৪ মিনিট পরেই উল্টো গোল খেয়ে বসে তারা। গোলদাতা প্রথম গোলের নায়ক রাজা।

৭৪ মিনিট দুর্দান্তভাবে একটা গোল শোধ দিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু এবারও গোলের বিল্ড আপে অফসাইডে ছিলেন গ্রিজমান! এরপর আর গোল শোধ করা হয়নি বার্সার। একরাশ হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।









Leave a reply