‘গরুর দুধে সোনা আছে’: এনজিওতে গাভী বন্ধক রেখে ঋণ চাইলেন কৃষক!

|

গরুর দুধে সোনা আছে, সম্প্রতি এমনই দাবি করেছিলেন পশ্চিবঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বর্ধমানের এক দলীয় কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে এই মন্তব্যের জেরে হাসির খোরাকে পরিণত হন তিনি। নানা মহল থেকে তাকে উদ্দেশ্য করে ভেসে আসতে থাকে টিকা টিপ্পনি।

শুধু দিলীপ ঘোষই নন। বিতর্কিত এবং অবৈজ্ঞানিক মন্তব্য করার ক্ষেত্রে সাম্প্রতিক সময়ে গোটা বিজেপি দলটিতেই চলছে প্রতিযোগিতা।

এবার সেই মন্তব্যের জেরেই নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল পশ্চিমবঙ্গের হুগলী জেলার মানুষ। নিজের গৃহ পালিত কুড়িটি গরুর মধ্যে থেকে দু’টি গাভী ধরে বেঁধে নিয়ে এক ঋণ প্রদানকারী সংস্থার দরজায় হাজির হলেন ডানকুনির এক কৃষক। তার দাবি, গরুর দুধে সোনা আছে। অতএব গরু দু’টিকে বন্ধক রেখে লোন দিতে হবে তাকে।

কথা শুনে চক্ষু চড়ক গাছ ওই এনজিও সংস্থার কর্মীদের! ঘটনাটি শোরগোল ফেলেছে ডানকুনিতে। বেসরকারি ওই ঋণ প্রদানকারী সংস্থা সোনা বন্ধক রেখে বিভিন্ন রকম ঋণ দিয়ে থাকে। বৃহস্পতিবার সকালে সেখানে গরু নিয়ে উপস্থিত হয়ে ওই গো-পালক বলেন, ‘‘দিলীপ ঘোষ বলেছেন গরুর দুধে সোনা আছে। আমার কুড়িটি গাই আছে। দু’টো বন্ধক রেখে ঋণ নিয়ে কারবার আরো বাড়াতে চাই।’’

যদিও ঋণ দিতে খুব স্বাভাবিকভাবেই রাজি হয়নি ওই সংস্থাটি। তবে এই ঘটনায় ফের হাসির রোল পড়ে গেছে চারিদিকে। কেউ কেউ বলছেন, গো-বেচারা ওই ব্যক্তি দিলীপ ঘোষের কথায় প্রভাবিত হয়েই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

তবে নিন্দুকেরা বলছেন, ওই ব্যক্তি ইচ্ছাকৃতভাবেই হোক বা অন্য কারো কথায় প্রভাবিত হয়েই হোক, জেনে বুঝেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন দিলীপ ঘোষকে খোঁচা দেওয়ার জন্য।

সূত্র: গণশক্তি









Leave a reply