ধর্ষণে বাধা দিলে নির্যাতন করতেন ধর্মগুরু: চার নারীর অভিযোগ

|

ভারতে ধর্মগুরু ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন চার নারী। বুধবার থানায় অভিযোগকারীদের মামলার বরাতে জীনিউজ এ খবর দিয়েছে।

উত্তর প্রদেশের বস্তি জেলার সন্তু কুটির আশ্রমে সাধু স্বামী সচ্চিদানন্দ ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ। এর আগেও তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছিলো।

আশ্রমের ওই চার সেবিকা বুধবার সচ্চিদানন্দের আশ্রম থেকে পালিয়ে তাঁরা স্থানীয় জেলা পুলিশ সুপারের কাছে যান। সেখানে তারা সাধুদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তোলেন। আশ্রমের অন্য দুই সেবিকা ওই যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণে সহায়তা করতেন বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, দুই সেবিকা বিভিন্ন লোভ দেখিয়ে কিশোরী ও তরুণীদের আশ্রমে নিয়ে আসতেন। এরপরই তাঁদের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হতো। প্রায় প্রতি রাতেই ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হতে হতো আশ্রমের সেবিকাদের। বাধা দিলে কখনো কখনো গণধর্ষণেরও শিকার হতে হতো তাদের।

পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, ‘সেবিকাদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাঁদের মেডিকেলে পরীক্ষা করানো হচ্ছে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ’

এর আগে এ ধরনের ধর্ষণের দায়ে গুরুমিত রাম রহিম সিং ইনসান নামক আরেক গুরুকে ২০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।









Leave a reply