সাকিব এখন মক্কায়

|

জুয়ারির সঙ্গে আলাপের বিষয়টি আইসিসিকে তাৎক্ষণিক না জানানোয় ক্রিকেটের যে কোনো ফরম্যাটে ১ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

এমন শাস্তিতে শুধু ক্যারিয়ারেই নয় বিপুল আর্থিক ক্ষতির সম্মুক্ষীন হয়েছেন তিনি। এতে তো এই এক বছরে ৩৬ টি আর্ন্তজাতিক ম্যাচ খেলতে পারছেন না তিনি, অন্যদিকে তার সঙ্গে সবধরনের চুক্তি বাতিল করতে যাচ্ছে উবার, ইউনিলিভারসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক ও দেশীয় কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান।

এই এক বছরে কি করবেন সাকিব? গত ২৯ অক্টোবর থেকে সে প্রশ্নই গুণগুণ করছিল কানে কানে। ক্রীড়ামহলে যে গুঞ্জন ছড়িয়েছিল, লম্বা সময়ের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমাবেন সাকিব। যদিও তা যে শুধুই গুজব, এতোক্ষণে জেনে গেছেন সবাই।

দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র নয় দেশেই রাজধানীর অভিজাত এলাকায় ফুটবল খেলছেন সাকিব। আয় কর জমা দিয়েছেন। দেশের সব ক্রীড়াবিদদের মধ্যে সর্বোচ্চ করদাতার সম্মানসূচক পুরষ্কারও পেয়েছেন।

গিয়েছেন দুদকে, পিঠা খেয়ে এসেছেন। কন্যা আলাইনার জন্মদিন পালন করলেন বেশ ঘটা করেই। সব মিলিয়ে নিষিদ্ধ সময়ের শুরুটা বেশ ভালোভাবে উপভোগ করলেন। বিদেশে পাড়ি জমাননি।

তবে এবার ঠিকই বিদেশে পাড়ি জমালেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার। কিন্তু তা যুক্তরাষ্ট্রে অবকাশ কাটাতে নয়, আবার লম্বা সময়ের জন্যও নয়।

সময়টাকে ধর্মীয় কাজে ব্যয় করতে পবিত্র নগরী মক্কায় গেলেন তিনি।

জানা গেছে, ওমরাহ পালনের উদ্দেশে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের ফ্লাইটে সৌদি আরব গিয়েছেন সাকিব।

যদিও এ বিষয়ে গণমাধ্যমে কিছু বলেননি সাকিব। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভক্তদের উদ্দেশ্যেও এ বিষয়ে কোনো ইঙ্গিত দেননি।

তবে সাকিবের ওমরাহ পালনে সৌদি গমনের তথ্যটি দিয়েছেন দেশের বাইরে যাওয়ার সময় জাতীয় দলের ক্রিকেটারা যাকে পাশে পান সবসময় সেই ওয়াসিম খান।

বিসিবির লজিস্টিক ম্যানেজার ওয়াসিম খান রাত সোয়া ১টার দিকে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে সাকিবের সঙ্গে একটি ছবি আপলোড করেছেন।

ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ওমরাহ পালন করতে জেদ্দার উদ্দেশে রওনা হচ্ছে সাকিব আল হাসান। তার জন্য আমার দোয়া রইল।’

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত ২টা ৪০ মিনিটের ফ্লাইটে সৌদি আরবের উদ্দেশে দেশ ত্যাগ করেছেন সাকিব। ওমরাহ পালন করেই দেশে ফিরবেন তিনি।









Leave a reply