শিবপুরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

|

নরসিংদী প্রতিনিধি
নরসিংদীর শিবপুরে পুলিশের সঙ্গে ডাকাত দলের ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ আব্দুর রাজ্জাক (৩৮) নামে এক ডাকাত সর্দার নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার তেলিয়া শশ্মানঘাট সংলগ্ন কলা ক্ষেতে এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত রাজ্জাক শিবপুর উপজেলার ধানুয়া গ্রামের মৃত রফিজ উদ্দিনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে নরসিংদীর বিভিন্ন থানায় ১টি হত্যা, ১২টি ডাকাতিসহ ১৬টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শিবপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, হত্যা ও ডাকাতিসহ ১৬ মামলার আসামি রাজ্জাককে বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গ্রেফতার করা হয়। এসময় জিজ্ঞাসাবাদে অস্ত্র ও সহযোগী ডাকাতদের বিষয়ে তথ্য দেয় রাজ্জাক। পরে তার দেয়া তথ্যমতে অন্যান্য ডাকাতদের গ্রেফতারের জন্য তাকে নিয়ে রাতে অভিযানে বের হয় পুলিশ। রাত ১২টার দিকে শিবপুর উপজেলার তেলিয়া শশ্মান ঘাট এলাকায় গেলে রাজ্জাককে ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিছুঁড়ে অন্যান্য ডাকাতরা। এসময় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয় ডাকাত রাজ্জাক ও এক উপ-পরিদর্শকসহ দুই কনস্টেবল। রাতেই নরসিংদী জেলা হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাকাত রাজ্জাককে মৃত ঘোষণা করেন। আহত তিন পুলিশ সদস্যকে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

শিবপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল ইসলাম বলেন, মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে ৪টি রামদা, ৫ রাউন্ড গুলি, ১টি একনলা বন্দুক ও ১টি তালা কাটার যন্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।









Leave a reply