১০ বছর পর ইসরায়েলের বিপক্ষে জাতিসংঘ প্রস্তাবে ভোট দিল কানাডা

|

ফিলিস্তিনীরা দখলদার ইসরাইল কর্তৃক নির্যাতিত। দীর্ঘদিন ধরে ইসরাইল ফিলিস্তিনের ভূখণ্ড দখল করে আসছে। সম্প্রতি ট্রাম্প প্রশাসন ফিলিস্তিনিদের বাড়ি-ঘর ও জায়গা দখলকে বৈধ বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

মার্কিন প্রশাসনের এ সম্মতির সমালোচনা করেছেন খ্রিস্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস।

এদিকে কানাডা ১০ বছর পর প্রথম ফিলিস্তিনের পক্ষে কোনো জাতিসংঘ প্রস্তাবে ভোট দিল কানাডা। এর আগে ধারাবাহিকভাবে দেশটি ইসরায়েলের পক্ষেই ভোট দিয়েছে।

দীর্ঘদিন ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে মুসলিমদের বসত-বাড়ি ও জায়গার অন্যায় দখলদারিত্বকে মার্কিন প্রশাসন অবৈধ বলে আসছিল। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র তাদের আগের অবস্থান থেকে সরে আসে।

এতে পোপ ফ্রান্সিস ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনা করেছেন এবং তাদের অবস্থান পরিবর্তনে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। পোপ ফ্রান্সিস বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র তাদের আগের অবস্থান পরিবর্তন করায় মধ্যপ্রাচ্যের আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা ব্যাহত হবে।’

এদিকে ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে ইসরাইলের এ অবৈধ দখলদারিত্বকে মার্কিন প্রশাসন বৈধতা দেয়ায় কানাডাও তাদের নিজের অবস্থান পরিবর্তন করেছে। দেশটি আগে দখলদার ইসরাইলকে সমর্থন করলেও গত দশ বছরে এই প্রথম কানাডা ফিলিস্তিনি জনগণের পক্ষে জাতিসংঘ রেজুলোশনে ভোট দিয়েছে।

কানাডা মনে করে ফিলিস্তিনিদের আত্ননিয়ন্ত্রণের অধিকার রয়েছে।









Leave a reply