লিথিয়াম হাতিয়ে নিতেই মার্কিনিদের মদদে অভ্যুত্থান: মোরালেস

|

বলিভিয়ার সদ্য পদত্যাগ করা প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস বলেছেন, দেশটিতে লিথিয়ামের বিশাল খনিজ সম্পদ হাতিয়ে নেয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ধনে তার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থান করা হয়েছে।

অর্গানাইজেশন অব আমেরিকান স্টেটস বা ওএএস নামে মার্কিন মদদপুষ্ট সংস্থা এই অভ্যুত্থানের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। খবর রাশিয়া টুডের।

চলতি মাসের গোড়ার দিকে ক্ষমতা ছেড়ে বলিভিয়া থেকে মেক্সিকো পালিয়ে যান মোরালেস। পুনর্বার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরই এ ঘটনা ঘটে।

বিরোধীরা দাবি করেছে এ নির্বাচন জালিয়াতি হয়েছে। বিরোধীদের বক্তব্যকে কেন্দ্র করে দেশটিতে পুনর্বার নির্বাচন দিতে চেয়েছিলেন মোরালেস।

কিন্তু বলিভিয়ার পুলিশ এবং সেনাবাহিনী বিনা ঘোষণায় সমর্থন প্রত্যাহার করায় শেষ পর্যন্ত মেক্সিকোতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হন তিনি। রাশিয়ার একটি গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মোরালেস আরও বলেন, অক্টোবরে অনুষ্ঠিত বলিভিয়ার নির্বাচন নিয়ে ওএএস যে প্রতিবেদন দিয়েছে তাতে কিছু অনিয়ম ঘটার বলা হয়েছে। কিন্তু জালিয়াতি হয়েছে এমন কথা উল্লেখ করা হয় নি কোথাও ।

তিনি আরও জানান, বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম লিথিয়াম খনিজ সম্পদ রয়েছে বলিভিয়ায়। অর্থনৈতিক ভবিষ্যতের কথা ভেবে একে জাতীয়করণ করার পরিকল্পনা করেছিলেন তিনি।

কিন্তু এ সম্পদ হাতিয়ে নেয়ার জন্য মার্কিন মদদপুষ্টরা অভ্যুত্থান ঘটনার মাধ্যমে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয় বলেও জানান তিনি।

বিদ্যুৎচালিত গাড়ি এবং দীর্ঘমেয়াদি ব্যাটারি তৈরির জন্য লিথিয়াম অপরিহার্য। ২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বজুড়ে এর চাহিদা দ্বিগুণে দাঁড়াবে।









Leave a reply