স্কুলে থাকবে না পরীক্ষা!

|

স্কুল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বন্ধ করার সুপারিশ করেছে ভারতের নতুন জাতীয় শিক্ষা নীতি (এনইপি) কমিটি। ২০২১ সাল থেকে দেশটির স্কুলগুলোর যাবতীয় পরীক্ষা ব্যবস্থা উঠে যেতে পারে। শিক্ষা ব্যবস্থার ক্ষেত্রে আসতে পারে আমূল পরিবর্তন। নতুন পদ্ধতিতে ‘৫-৩-৩-৪’ কাঠামোয় শ্রেণি ভিত্তিক মূল্যায়ন ব্যবস্থা চালু করা হবে। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

বোর্ডগুলির এবং শিক্ষাবিদদের সুপারিশ পাওয়ার পরই বর্তমানে প্রচলিত ১০+২ কাঠামো বাতিল করে ২০২১ সাল থেকে নতুন মূল্যায়ন ব্যবস্থা চালু হবে।

উল্লেখ্য, জুন মাসে জাতীয় শিক্ষা নীতি কমিটির খসড়ায় ‘৫-৩-৩-৪’ কাঠামোর কথা বলা হয়েছে। অর্থাৎ শিক্ষা ব্যবস্থার একদম গোড়া থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত সময়কালকে মোট চার ভাগে ভাগ করা হয়েছে। প্রাক প্রাথমিকের তিন বছর এবং প্রথম-দ্বিতীয় শ্রেণিকে নিয়ে পাঁচ বছরের ধাপ নির্ধারণ করা হয়েছে। তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত সময়কে প্রস্তুতি পর্ব হিসাবে সুপারিশ করা হয়েছে। ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাকালকে মধ্যবর্তী দশা হিসেবে দেখা হয়েছে এবং নবম থেকে দ্বাদশ পর্যন্ত মোট চার বছরের ‘সেকেন্ডারি’ স্তর রূপে সুপারিশ করা হয়েছে।

দেশটির জাতীয় শিক্ষা নীতি কমিটি উল্লেখ করেছে যে বর্তমান পরীক্ষা ব্যবস্থা ছাত্রছাত্রীদের নির্দিষ্ট কয়েকটি বিষয়ে মনোনিবেশ করতে বাধ্য করে। এর ফলে, সংশ্লিষ্ট বিষয়টিতে পড়ুয়াদের সার্বিক জ্ঞানলাভ অধরাই থেকে যায় এবং শেষ পর্যন্ত পরীক্ষা ব্যবস্থা শিক্ষার্থীদের জন্য মানসিক চাপের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। বোর্ডের মূল্যায়নের আগে শিক্ষার্থীদের বিষয় বেছে নেওয়ার সুযোগের কথাও বলা হয়েছে। কোন সেমিস্টারে তারা বোর্ডের মূল্যায়নের মুখোমুখি হবে, সেই সিদ্ধান্তও গ্রহণ করবে শিক্ষার্থীরাই।









Leave a reply