‘বিদেশে জিয়া পরিবারের সম্পদ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রমাণ করা যাবে’

|

বিদেশে জিয়া পরিবারের সম্পদ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী যা বলেছেন তা প্রমাণ করা যাবে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মামল আব্দুল মুহিত। সিলেটে এক অনুষ্ঠানে আজ শনিবার তিনি বলেন, এ সংক্রান্ত তথ্য সরকারের কাছে আছে।

গত ৭ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, সৌদি আরবে খালেদা জিয়া একটি শপিং মলের মালিক এবং সেখানে তাঁর বিপুল সম্পদ রয়েছে। খালেদা জিয়া টাকা পাচারের সঙ্গেও জড়িত।

বিএনপির পক্ষ থেকে এই অভিযোগকে মিথ্যা বলে প্রতিপন্ন করা হয়। একই সাথে এমন অভিযোগ তোলার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে গত ২০ ডিসেম্বর উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন খালেদা জিয়া।

বিদেশে জিয়া পরিবারের সম্পদের বিষয়টি গত ১৩ সেপ্টেম্বর জাতীয় সংসদের অধিবেশনে আলোচনায় এনেছিলেন সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য ফখরুল ইমাম। একটি বিদেশি সংস্থার প্রতিবেদনের (জিআইএন রিপোর্ট) বরাত দিয়ে তিনি বলেন, সৌদি আরবে খালেদা জিয়ার নামে শপিং মল আছে। এ ছাড়া খালেদা জিয়ার দুই ছেলে এবং বিএনপির একাধিক জ্যেষ্ঠ নেতার নামে বিদেশে সম্পদ রয়েছে বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে এর প্রতিকার চেয়েছিলেন।

জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও জিয়া পরিবারের সদস্যদের নামে বিদেশে কী কী সম্পদ আছে, তা নিয়ে তদন্ত চলছে। সত্যতা যাচাই করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 









Leave a reply