চুরির অভিযোগে নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি
ফরিদপুরের সদর উপজেলার জ্ঞানদিয়া গ্রামে চুরির অভিযোগে আতিয়ার সেখ (৩৫) নামের এক নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার দিবাগত রাতে আতিয়ারকে গণপিটুনি দিলে সে গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে গুরুতর আহতাবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই শ্রমিকের বাড়ি পাশের গ্রাম নলডাঙ্গা দয়ারামপুরে।

নিহতের স্ত্রী মিনা বেগমের দাবি, পাশের গ্রামের প্রামানিক পাড়ার কয়েকজনের সাথে পূর্ব থেকেই বিবাদ চলে আসছিল, এরই জের ধরে বুধবার রাতে তার স্বামী আতিয়ার শেখকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের ভাই লুৎফর জানান, পাশের গ্রামের একটি মসজিদের নির্মান কাজ শেষে বাড়ি ফিরছিল তার ভাই। পথিমধ্যে পূর্ব শত্রুতার জেরে তাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

কোতয়ালী থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক বেলাল হোসেন জানান, রাতে ওই ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি জানান, সুরতহাল তৈরির পর ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। এঘটনায় এখন পর্যন্ত নিহতের পক্ষে কেউ থানায় কোন অভিযোগ করেনি।









Leave a reply