বিশ্বের ‘ইন্টারনেট শাটডাউন’ রাজধানী ভারত!

|

সরকারি নির্দেশে গত এক বছরে বিশ্বে সবচেয়ে বেশিবার ইন্টারনেট বন্ধ হয়েছে ভারতে।

ইন্টারনেটে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, নিরাপত্তা, গোপনীয়তা ও মানবাধিকারের মতো বিষয়ের পক্ষে লড়া আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘অ্যাকসেস নাও’ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

অ্যাকসেস নাওয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১২ সালের জানুয়ারি থেকে এখনও ভারতে ৩৭৩ বার নেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে।

শুধু ২০১৯ সালেই ৯১ বার ইন্টারনেট বন্ধ হয়েছে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে। ২০১৮ সালে নেট বন্ধ হয়েছে ১৩৪ বার। শুধু নথিভুক্ত হয়েছে এমন ঘটনারই নাগাল পেয়েছে সংস্থাটি। তাদের মতে, প্রকৃত সংখ্যাটি আদতে অনেক বেশি।

টেলিকম সংস্থাগুলো রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারের থেকে নির্দেশ পেয়ে বিশেষ বিশেষ পরিস্থিতিতে রাজ্যে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেয়।

সাধারণ আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা হাতের বাইরে চলে গেলেই নেট বন্ধ করে দেয় সরকার। সহিংসতা বা সংঘর্ষ রুখতেও নেট পরিষেবা বন্ধ করা হয়।

২০১২ থেকে এ পর্যন্ত কাশ্মীরে ১৮০ বার ইন্টারনেট বন্ধ হয়েছে। তবে রাজস্থানের মতো কোনো কোনো রাজ্যে পরীক্ষা চলাকালীন নকল করা বন্ধ করতেও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে।

২০১০ সাল থেকে কেন্দ্রীয় সরকার ইন্টারনেট পরিষেবা নিয়ে কড়াকড়ি শুরু করে। কিন্তু সংস্থাটির মতে, ২০১৪ সাল থেকে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে ‘শাটডাউন’ প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে দেশে।

‘ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর রিসার্চ অন ইন্টারন্যাশনাল ইকোনমিক রিলেশন’র রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১২ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে নেট বন্ধ হওয়ার কারণে ৩০০ কোটি ডলার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ভারতের।









Leave a reply