মিয়ানমারকে চাপ দিতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

|

ফাইল ছবি

বাসস:

রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর চাপ বাড়াতে রাশিয়ার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুুল মোমেন।

তিনি বলেন, মিয়ানমারের ওপর রাশিয়ান সরকারের যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে। তাই আমরা বিশ্বাস করি, যদি তারা মিয়ানমারের ওপর চাপ বাড়ায় তবে আশা করা যায় দেশটি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবে।

রাজধানীর একটি হোটেলে সোভিয়েত অ্যাসোসিয়েশন ইন বাংলাদেশ আয়োজিত সোভিয়েত/রাশিয়ান গ্রাজুয়েটসের ৫ম এশীয় সম্মেলনে সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, মিয়ানমার তাদের বাস্তুচ্যুত নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে সম্মত হয়েছিল। কিন্তু এখন তারা এই প্রক্রিয়াকে বিলম্বিত করছে।

সাবেক ইউনিয়ন অব দ্য সোভিয়েত সোশ্যালিস্ট রিপাবলিকসের সঙ্গে বাংলাদেশের দীর্ঘ ঐতিহাসিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ করে মোমেন বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও এরপর দেশ পুনর্গঠনে সোভিয়েত ইউনিয়নের সমর্থন ও অবদান সম্পর্কে আমরা সবাই অবগত রয়েছি।
তিনি আরও বলেন, দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা ও সমঝোতার সম্ভাবনা থাকলেও ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মম হত্যাকাণ্ডের পর রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তা সম্ভব হয়নি।

২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় এসে রাশিয়ার সঙ্গে বিভিন্নভাবে সম্পর্ক জোরদারের সিদ্ধান্ত নেয়। এরই ধারাবাহিকতায় দুই দেশের মধ্যে রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বাংলাদেশের জ্বালানি নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য রুশ ফেডারেশনের সহায়তা প্রয়োজন। বাংলাদেশে বিনিয়োগে রুশ ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বানও জানান তিনি। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত আলেক্সান্ডার আই ইগনাতোভও বক্তব্য দেন।









Leave a reply