পায়রা থেকে উৎপাদিত ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রিডে আজ সফলভাবে সঞ্চালন শুরু হয়েছে। আমদানি করা কয়লা থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের এটি একটি বড় মাইল ফলক বলে মনে করেন প্রকল্প বাস্তবায়নকারী কর্তৃপক্ষ। আগামী মাসে বাণিজ্যিকভাবে এখান থেকে ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে।

পায়রা তাপবিদ্যুৎ কেন্দের বিসিপিসিএল এর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী পিনজুর রহমান জানান, পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার রামনাবাদ চ্যানেল আর আন্ধারমানিক নদীর তীরে গড়ে উঠেছে দেশের বৃহত্তম পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপবিদ্যু কেন্দ্র। কয়লাভিত্তিক এ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য দরকারী প্রতিদিনের ১৩ হাজার টন কয়লাও আমদানি করা শুরু হয়েছে। সম্পন্ন হয়েছে ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইনও। এই সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমেই আজ এখান থেকে উৎপাদিত ১২০ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে পরীক্ষামূলকভাবে যুক্ত হয়েছে।

বিসিপিসিএল এর নির্বাহি প্রকৌশলী মোঃ তারেক নুর জানান, এটি পর্যায়ক্রমে উৎপাদন বৃদ্ধি করে এই মাসে শেষের দিকে পূর্ণ ক্ষমতায় বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে। বিদ্যুৎ কেন্দ্রে প্রথম ইউনিটের ৬৬০ মেগাওয়াট আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে এবং দ্বিতীয় ইউনিট আরো ৬৬০ মেগাওয়াট আগামী মে মাসে বাণিজ্যিকভাবে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে।

২০১৬ সালের ২৯ মার্চ বাংলাদেশ ও চীনের মধ্যে ঠিকাদার নিয়োগের চুক্তি স্বাক্ষরের পর প্রায় ১২ হাজার ২৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ের এ প্রকল্পের প্রায় ৮০ শতাংশ ঋণ দিচ্ছে চীনের এক্সিম ব্যাংক ও চায়না ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। মূল কাজের পুরো তদারকি করছে চীনের ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।









Leave a reply