কিমের ডেস্কেই থাকে পারমাণবিক বোমার বোতাম!

|

নববর্ষের শুভেচ্ছা বার্তাতেও হুমকির বাণী শোনালেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন। যুক্তরাষ্ট্রকে উদ্দেশ্য করে বললেন, “পারমাণবিক বোমার বোতাম আমার ডেস্কেই থাকে। যে কোন মুহূর্তে এটি ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত আমি।”

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে কিম বলেন, “গোটা মার্কিন মুল্লুক আমাদের আন্ত:মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের আওতায় রয়েছে; কোন হুমকি নয়, এটাই চরম বাস্তবতা।”

যুক্তরাষ্ট্রকে এমন কড়া কথা শোনালেও প্রতিবেশি দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন কিম। তিনি বলেন, “উত্তর-দক্ষিণ সম্পর্কোন্নয়নের পরিবেশ নিশ্চিতে সামরিক উত্তেজনা কমানো উচিত।’ ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য  শীতকালীন অলিম্পিকে একটি দল পাঠানোর কথাও ভাষণে জানান তিনি।

কিমের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায় ইন বলেন, উত্তর কোরিয়ার অংশগ্রহণ অলিম্পিকের নিরাপত্তা বাড়াবে বলে। তবে প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, তারা এখনও উত্তর কোরিয়ার নেতার নববর্ষের ভাষণটি পর্যালোচনা করে দেখছেন।

এদিকে কিমের হুমকির ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুধু এটুকুই বলেন, “দেখা যাক কি হয়”। আর মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

সব ধরনের আন্তর্জাতিক চাপ উপেক্ষা করে সদ্য সমাপ্ত বছরে একের পর এক পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। শুধু তাই নয়, ষষ্ঠবারের মতো হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষাও চালায় দেশটি।

 









Leave a reply