সুন্দরীর টোপ দিয়ে ইসরায়েলি সেনাদের ফোন হ্যাক করেছে হামাস

|

হ্যাকিং ও গোয়েন্দাবৃত্তির ঘটনায় আকর্ষণীয় ও সুন্দরী নারীদের ব্যবহার নতুন কিছু নয়। এবার সুন্দরী নারীর ছবি টোপ হিসেবে ব্যবহার করে এক ডজন ইসরায়েলি সেনার ফোন হ্যাক করেছে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সংগঠন হামাস। ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে। সূত্র: বিবিসি।

ইসরায়েল সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল জোনাথান কনরিকাস বলেন, তরুণীদের ভুয়া প্রোফাইল ছবি সেনাদের কাছে পাঠিয়ে তাদের একটি অ্যাপ ডাউনলোডে প্রলুব্ধ করা হয়। এতে হ্যান্ডসেটের তথ্য বেহাত হতে পারে সেটি সেনাদের মাথায় আসেনি।

সেনাদের ফোন হ্যাক হলেও, আগেভাগেই এই স্ক্যাম ধরতে পারায় গুরুত্বপূর্ণ কোনো তথ্য বেহাত হয়নি বলে দাবি ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর ওই মুখপাত্রের।

ইসরায়েলি সেনাদের ফোন হ্যাকিংয়ে হামাসের তৃতীয় প্রচেষ্টার ঘটনা এটি যেটি প্রকাশিত হয়েছে। এবারই নাকি সবচেয়ে জটিল আক্রমণ চালিয়েছে হামাস।

জানা গেছে, ভুল হিব্রু ভাষা ব্যবহার করে তরুণীর ছদ্মবেশে সেনাদের নানাভাবে প্রলুব্ধ করেছে হ্যাকাররা। এ ছাড়া অভিবাসী বা প্রতিবন্ধী হিসেবেও ছদ্মবেশ নিয়ে সেনাদের কাছে নিজেদের বিশ্বাসযোগ্য করে তুলেছে হ্যাকাররা। অনলাইনে বন্ধু হওয়ার পর ওই ভুয়া প্রোফাইল থেকে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করার জন্য বলা হয়, যাতে ছবি আদান–প্রদান করা সম্ভব। এভাবে সেনাদের ফোনে ম্যালওয়্যার ঢুকে পড়েছে। ওই ম্যালওয়্যার স্মার্টফোন ও কম্পিউটার থকে তথ্য সরাতে পারে। দূর থেকেই ফোনের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে হ্যাকাররা। এতে ব্যবহারকারীর অজান্তে কথাবার্তা রেকর্ডিংসহ ছবি নিতে পারে।

উল্লেখ্য. ইসরায়েলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সশস্ত্র সংগ্রামে নিয়োজিত আছে ফিলিস্তিনি মুক্তিকামী সংগঠন হামাস। ইসরায়েলের সাথে টেক্কা দিয়ে তারাও গোয়েন্দা ও প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধির চেষ্টা করে আসছে।









Leave a reply