ভদকার বোতল গেলো কই?


ভদকার প্রতিই যার আসক্তি বোতলের প্রতি তার কতটা মনোযোগ তা নিয়ে সংশয় থাকতেই পারে। তবে, সুদৃশ্য ভদকার বোতলের প্রতি যে অনেকের আগ্রহ আছে সেটি নিশ্চিতভাবেই বলা যায়। ভদকা পছন্দ করেন না এমন অনেকেই পানি রাখার কাজে এসব সুন্দর বোতল ব্যবহার করে থাকেন। কেউ কেউ আবার মানি প্ল্যান্ট গাছ লাগিয়ে ঘরের শোভাবর্ধনের কাজে নানা আকৃতির এসব বোতল ব্যবহার করে থাকেন।

ভেবে দেখেছেন কখনও, একটি ভদকার বোতলের দাম কত হতে পারে? অভিজ্ঞের ভাব নিয়ে যদি বলে বসেন ২০০-১০০০ টাকার মধ্যে, তবে আপনার জন্য পিলে চমকানো তথ্য, একটি ভদকার বোতলের দাম ১.৩ মিলিয়ন ডলার! প্রায় ১০ কোটি ৮০ লাখ টাকারও বেশি। ডেনমার্কের একটি বারে রক্ষিত ছিল মহামূল্যবান এ ভদকার বোতলটি। বারের মালিক ব্রেইন ইনগবার্গের দাবি, এটিই পৃথিবীর সব থেকে দামি ভদকার বোতল।

দামি হবেই না বা কেন? ৩ কিলোগ্রাম সোনা এবং সমপরিমাণ সিলভার দিয়ে তৈরি রুশো-বাল্টিক নামের ভদকার বোতলটি। আর ছিপিটি হীরা খচিত। শুধু তাই নয়, দুর্লভ মডেলের একটির গাড়ির সামনের অংশের আদলে নকশা করা হয়েছে এর নকশা।

পাঠক, এতক্ষণে নিশ্চয় আপনি বুঝে গেছেন, বোতলটি চুরি হয়ে গেছে। চুরির ঘটনা তদন্তে নিযুক্ত কোপেনহেগেন পুলিশের কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা এপি’কে বলেন, ক্যাফে থার্টি নামের একটি অভিজাত বারে এই ভদকার বোতলটি রক্ষিত ছিল। সেটি কেউ চুরি করে নিয়ে গেছে।

আর, বারের মালিকের কথা, ১২০০টি বোতলের মধ্যে কেবল রুশো-বাল্টিকের বোতলটিই চুরি হয়ে গেছে। শৌখিন চোরই বটে!

যমুনা অনলাইন: এএস/টিএফ

 

 









Leave a reply