ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৮ প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টাইনে

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চার উপজেলায় ইতালি থেকে আসা সাতজন ও সৌদি আরব থেকে আসা একজনসহ আট প্রবাসীকে নিজ নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে (সঙ্গরোধে) রেখেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

সোমবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন শাহ আলম। তাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের কোনো লক্ষণ নেই এবং আতংক না ছড়াতে তাদের নাম পরিচয় গোপন রাখা হয়েছে।

সিভিল সার্জন শাহ আলম জানান, সম্প্রতি ইতালি আসা ৭ জন ও সৌদী আরব থেকে আসা একজনসহ মোট আটজনকেই যার যার বাড়িতেই হোম কোয়রেন্টাইনে থাকার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে আখাউড়ায় তিন জন ইতালী, কসবায় একজন ইতালী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদরে দুইজনের মধ্যে একজন ইতালী ও একজন সৌদী আরব ও আশুগঞ্জে দুইজন ইতালী থেকে এসেছেন। আট প্রবাসীর মধ্যে কোন নারী ও শিশু নেই। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেয়া হলেও এখনো তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নয়। তাদের সার্বক্ষনিকভাবে উপজেলা ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে সার্বক্ষনিকভাবে নজরদারী করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, হোম কোয়রন্টাইনে থাকা সকলকেই বলা হয়েছে যেন বাড়ি থেকে বের না হন এবং জনসমাগম এড়িয়ে চলেন। যারা এই নির্দেশ অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য: জেলা সদর হাসপাতাল ও উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্বাস্থ্য বিভাগ। করোনা আক্রান্ত কিংবা করোনার লক্ষণ আছে এমন রোগীদের সেখানে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। করোনভাইরাস পরীক্ষায় প্রয়োজনীয় যন্ত্র নেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরকারি-বেসরকারি কোনো হাসপাতালে। কাউকে সন্দেহ হলে চিকিৎসা ও পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হবে।









Leave a reply