ব্যাংকে হাত ধোয়ার ব্যবস্থাসহ মাস্ক ও গ্লাভস নিশ্চিত করার নির্দেশ

|

দেশের সকল তফসিলি ব্যাংকে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও গ্লাভস ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একইসাতে ব্যাংকের শাখাসমূহে আগত গ্রাহকদের জন্য হাত ধোয়ার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিশ্চিত করার নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

আজ রোববার দেশের তফসিলি ব্যাংকসমূহের প্রতি মহাব্যবস্থাপক মো: গোলাম মোস্তফা স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়- করোনাভাইরাস নিয়ে বৈশ্বিক অভিজ্ঞতা ও আমাদের আর্থ-সামাজিক বাস্তবতাকে বিবেচনায় নিয়ে কোভিড১৯ নিয়ন্ত্রণে তফসিলি ব্যাংকসমূহে ক্যাশ ব্যবস্তাপনায় সতর্কতামূলক কার্যক্রম গ্রহণের পরামর্শ প্রদান করা হল।

ক্যাশ কাউন্টারে কাজ করার সময় মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস পরে সেবা প্রদান করবেন। এবং নোট নাড়াচাড়ার পর স্যানিটাইজার বা সাবান দিয়ে হাত ধৌত করবেন।

নগদ অর্থ নাড়াচাড়ার পর তার নিজ হাত জীবাণুমুক্তকরণের পূর্বে কোনভাবেই হাত দিয়ে অফিসের কোন জায়গা ও সহকর্মীদের স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

ব্যাংক শাখায় আগত গ্রাহকগণ যাতে স্যানিটাইজার/সাবান দিয়ে হাত ধৌত করতে পারেন ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সে ব্যবস্থা করতে হবে।

ব্যাংকসমূহ তাদের শাখা পর্যায়ে যাতে পর্যাপ্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক ও গ্লাভস সরবরাহ নিশ্চিত করতে পারে সেজন্য ব্যাংখ ব্যবস্থাপনা দ্রুত ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

পরিস্থিতি বিবেচনায় আপাতত নগদ অর্থ উত্তোলনের পরিবর্তে চেক প্রদান, মানি ট্রান্সফার বা অনলাইন ব্যাংকিংসহ অন্যান্য ব্যাংকিং ইন্সট্রুমেন্ট ব্যবহারের জন্য গ্রাহকদের উৎসাহিত করতে হবে।

একইসাথে ব্যাংকসমূহ মূল্যমান নির্বিশেষে সকল প্রকার নোট গ্রহণ, ছেঁড়া-ফাটা ও ত্রুটিপূর্ণ নোট গ্রহণ এবং উহার বিনিময় মূল্য প্রদান কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে।









Leave a reply