সংক্রমণ এড়াতে সবজি, মাছ-মাংস যেভাবে পরিষ্কার করবেন

|

করোনাভাইরাসে অবরুদ্ধ বিশ্ব। তারপরেও থেমে নেই মানুষের জীবন। প্রতিদিনের দৈনন্দিন চাহিদা মেটাতে তাই আপনাকে ছুটতে হচ্ছে বাজার সদায় করতে। তবে ভেবে দেখেছেন কি এই শাকসবজি, মাছ-মাংস কতটা নিরাপদ?

কাঁচাবাজারের এসব পণ্যে হাজারও মানুষের হাতের স্পর্শ লাগে। যা থেকে মুহূর্তেই ছড়াতে পারে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। বিপদগ্রস্ত হতে পারেন আপনি ও আপনার পরিবার। তাই এগুলো কেনার পর ভালোভাবে পরিষ্কার করা অত্যাবশ্যক।

নিউজার্সির রটজার্স ইউনিভার্সিটির ফুড সায়েন্স ডিপার্টমেন্টের প্রফেসর ডোনাল্ড স্যাফনার শাক সবজি কিংবা মাছ- পরিষ্কার করার বিষয়ে বেশ চমৎকার উপায়ের কথা বলেছেন। ডোনাল্ডের মতে, তাই খাবার নয়, সাবধান থাকতে হবে মানুষ থেকে। বাজার থেকে আপনি যদি একটি আপেল কিনেন, এর আগে সেটি স্পর্শ করেছিলেন হাঁচি-কাশিতে আক্রান্ত কোনো মানুষ। আপনি যদি সেই আপেল নাকে ও মুখে ঘষেন, অথবা হাত নাকে মুখে দেন- তবেই সংক্রমণের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তবে বাজার থেকে এসেই ভালো করে হাত ও আপেল ধুয়ে খেতে হবে।

করোনা আতঙ্কের এই সময় বাজার থেকে কেনা শাকসবজি, ফল বা কাঁচা-মাছ মাংস পরিষ্কার নিয়ে অনেকেই দ্বিধান্বিত থাকেন। ডোনাল্ড বলছেন, সাবান-পানি অথবা ব্লিচের সল্যুশন দিয়ে খাবার পরিষ্কার করার প্রয়োজন নেই। সাধারণভাবে পরিষ্কার করুন এগুলো।

আসুন জেনে নিই এ সম্পর্কে কিছু টিপস।

১. বাজার থেকে এসে ভালো করে হাত মুখ ধুয়ে নিন সাবান দিয়ে।

২. শাকসবজি, ফল, মাছ-মাংস পানিতে ধুয়ে নিন। ব্রাশ বা হাত দিয়ে ঘষে ঘষে পরিষ্কার করাই যথেষ্ট।

৩. শাকসবজি ও মাছ-মাংস আলাদা স্থানে সংরক্ষণ করুন।

৪. কাটার সময়ও আলাদা চপিং বোর্ড ব্যবহার করুন।

৫. মাছ-মাংস ও সবজি কাটার পর আলাদাভাবে খুব ভালো করে হাত ধুয়ে নিন।

৬. যদিও এখন পর্যন্ত কাঁচাসবজি থেকে এই ভাইরাস সংক্রমণের কোনো খবর পাওয়া যায়নি, তবু সম্ভব হলে কাঁচা শাকসবজি এ সময় এড়িয়েই চলুন।

৭. যেসব ফল খোসা ছাড়িয়ে খাওয়া সম্ভব, সেগুলো খোসা ছাড়িয়ে খান।

৮. জার্নাল অব অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড ফুড কেমিস্ট্রিতে প্রকাশিত এক গবেষণা মতে, বেকিং সোডা সবজি ও ফলে থাকা জীবাণু ধ্বংস করে। এ জন্য সিঙ্কে পানি ভর্তি করে ১ টেবিল চাম বেকিং সোডা মিশিয়ে ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন শাকসবজি ও ফল।

তথ্য: ইনসাইডার, কনজিউমার রিপোর্টস









Leave a reply