এশিয়ার কোন দেশে কত বন্দী?


৭শ কোটি মানুষের এই পৃথিবীতে প্রায় এক কোটির ঠিকানা কারাগার। নির্দিষ্ট করে বললে, এক কোটি তিন লাখ ৫০ হাজার। কোন দেশের কারাগারে কত কয়েদি আছে, তা নিয়ে গবেষণা রিপোর্ট প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইন্সটিউট অফ ক্রিমিনাল পলেসি রিসার্চ।

বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ চীন। কয়েদির সংখ্যাটাও তাই সেখানেই বেশি থাকাটা স্বাভাবিক। ১৬ লাখের বেশী  মানুষ অন্তরীণ আছে চীনের কারাগারগুলোতে। বিচারপূর্ব ও প্রশাসনিক আটক হিসাবে আনলে এ সংখ্যা বাড়বে।

এশিয়ার মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতের কারাগারে আছে ৪ লাখের বেশী মানুষ। অবশ্য জনসংখ্যার অনুপাতে ভারতে কারাবন্দী মানুষের হার তুলনামূলক কম।

জনসংখ্যা অনুপাতে এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি মানুষ কারাভোগ করছে থাইল্যান্ডে। এখানে কয়েদির সংখ্যা ৩ লাখেরও বেশি।

এশিয়ায় কয়েদি সংখ্যার নিরিখে পাকিস্তান ও বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম ও অষ্টম। পাকিস্তানে ২০০৫ সালের পর কয়েদি সংখ্যা অনেক কমেছে। এখন দেশটিতে বন্দী আছে ৮০ হাজার মানুষ। বাংলাদেশের কারাগারে বন্দী আছে প্রায় ৭০ হাজার।

তবে এশিয়ার যে কোন দেশকে ছাড়িয়ে গেছে বিশ্ব পুলিশের ভূমিকায় অবতীর্ণ যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বে কারাবন্দী মানুষের ২৫ ভাগই রয়েছে মার্কিন নিয়ন্ত্রণাধীন কারাগারে। অর্থাৎ আমেরিকার জেলে বন্দী আছে ২২ লাখের বেশী মানুষ।









Leave a reply