কক্সবাজারে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

|

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের রামু রাবার বাগান এলাকায় ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আব্দুর রশিদ ওরফে খোরশেদ (৩০) নামে এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছে। নিহত খোরশেদ উখিয়ার কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা শিবিরের সি-২ ব্লকের মৃত নজির আহমদের ছেলে।

ঘটনাস্থল থেকে ৩০ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় তৈরী এলজি ও পাচারে ব্যবহৃত মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার মধ্যরাতে কক্সবাজারের রামু জোয়ারিয়ানালা রাবার বাগান এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে।

ডিবি পুলিশের দাবি নিহত রোহিঙ্গা একজন মাদক কারবারী। মোটর সাইকেলযোগে ইয়াবার চালান পাচারের সময় বন্দুকযুদ্ধে সে নিহত হয়। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক মানস বড়ুয়া জানান, ইয়াবা পাচারের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রামু রাবার বাগান এলাকায় আগে থাকা ডিবি পুলিশের একটি দল মোটর সাইকেল আরোহীকে থামার সংকেত দিলে সে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে এবং ডিবি সদস্যদের উপর গুলিবর্ষণ করে।

আত্মরক্ষার্থে ডিবিও পাল্টা গুলি চালায়। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে পাচারকারী নিহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে ৩০ হাজার ইয়াবা, পাচারে ব্যবহৃত মোটর সাইকেল, একটি দেশীয় তৈরী এলজিসহ তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান ডিবির ওই কর্মকর্তা।









Leave a reply