উমর আকমলের মানসিক চিকিৎসা দরকার: নাজাম শেঠি

|

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সাবেক চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি মনে করেন, সদ্য সবধরনের ক্রিকেটে তিন বছর নিষিদ্ধ দেশটির মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান উমর আকমলের মানসিক চিকিৎসা দরকার। আরও সুশৃঙ্খল হতেই এটি প্রয়োজন তার।

২০০৯ সালে নিজের প্রথম টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে লাইমলাইটে আসেন উমর। কিন্তু এরপর বিভিন্ন সময় বিতর্কে জড়িয়ে ক্যারিয়ার হুমকির মুখে ফেলে দেন তিনি। ক্রিকেটীয় নিয়ম ভঙ্গ এবং অসদাচরণের জন্য বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ভোগ করেন। পাশাপাশি জরিমানাও দেন এ হার্ডহিটার।

সবশেষ ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও তা পিসিবিকে জানাননি উমর। এ কারণে তাকে গত সোমবার আন্তর্জাতিকসহ ঘরোয়া ক্রিকেটে তিন বছর নিষিদ্ধ করেছে তারা।

পরে এ নিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমে কথা বলেন শেঠি। এসময় উমরের অতীত কর্মকাণ্ডও তুলে ধরেন তিনি।

সাবেক পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, এ বিষয়ে আগেই উমরকে সতর্ক করেছিলাম আমরা। এমনকি নিষিদ্ধ করার হুমকিও দিয়েছিলাম। যে কারণে আমি মনে করি, তাকে তিন বছর শাস্তি দেয়া ঠিক হয়েছে। সে সবসময় নিজের জন্য খেলতো, দলের পক্ষে নয়।

তিনি বলেন, অসাধারণ মেধাবী ক্রিকেটার হওয়া সত্ত্বেও উমর শৃঙ্খল নয়। যদি সে মানসিক চিকিৎসক দেখায় এবং চিকিৎসা নেয়, তাহলে অবশ্যই আরও সুশৃঙ্খল হবে।

শেঠি বলেন, আমি বোর্ডের চেয়ারম্যান হয়েই সর্বপ্রথম উমরের সম্পর্কে অভিযোগ পাই। তার মানসিক ও শারীরিক দুই সমস্যায় আছে। তাকে অসংখ্যবার আচরণ ঠিক করার কথা বলেছি। কিন্তু সে কর্ণপাত করেনি। বরং প্রতি দুই অথবা তিন মাস পরপর ঝামেলায় জড়িয়েছে।

উমর জাতীয় দলের হয়ে সবশেষ ম্যাচ খেলেন গত বছর লাহোরে। পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রত্যাবর্তনের সাক্ষী হিসেবে শ্রীলংকার বিপক্ষে ২ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেন তিনি। অবশ্য উভয় ম্যাচে ডাক মারেন ২৯ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার।

তথ্যসূত্র: ক্রিকেট পাকিস্তান ডটকম









Leave a reply