চাকরি না হওয়ায় ক্লিনিকে তালা: বিপাকে প্রসূতি মা ও শিশুরা

|

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরায় পছন্দের লোকের চাকরি না হওয়ায় কমিউনিটি ক্লিনিকে তালা ঝুলিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।

বুধবার সকালে কালিগঞ্জ উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। এছাড়া মোবাইল ফোনে ক্লিনিকটি ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়ার হুমকিও দেয়া হয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিকের কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডারকে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক মাস পূর্বে মাল্টিপারপাস হেলথ ভলান্টিয়ারে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ওই পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয় গত ৫ মে। পরীক্ষায় যোগ্য ও মেধাবীরা নিয়োগ পায়।

নিয়োগ পরীক্ষায় চাম্পাফুল ইউপির চান্দুলিয়া কমিউনিটি ক্লিনিকে ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইনের পছন্দের লোক নিয়োগ না পাওয়ায় তিনি ক্ষিপ্ত হন। বুধবার সকালে তিনি ওই ক্লিনিকে তালা ঝুলিয়ে ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেন।

চান্দুলিয়া কমিউনিটি ক্লিনিকের কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার জেসমিন সুলতানা জানান, প্রতিদিনের ন্যয় বুধবার সকাল ৯ টার দিকে তিনি পেশাগত দায়িত্ব পালনে ক্লিনিকে যান। যেয়ে দেখেন ওই ক্লিনিকের দরজায় দুইটি বড় আকৃতির তালা ঝোলানো। এরপর তিনি ক্লিনিকের সভাপতি স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল গণি গাজীকে বিষয়টি অবহিত করেন।

তিনি ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন, তার পরামর্শে ইউপি চেয়ারম্যানের নিকট ফোন দিলে চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইন হুমকি দিয়ে বলেন, আমরা ক্লিনিকের সেবা চাই না ক্লিনিক উঠিয়ে ফেলব।

ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইনের সাথে পরে আবার কথা হলে বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য জমি দানকারীর ছেলের চাকরি হয়নি তাই তালা মারা হয়েছে। ক্লিনিক উঠিয়ে ফেলব এরকম কথা বলিনি।

এ ব্যাপারে কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শেখ তৈয়েবুর রহমান জানান, ‘সরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে এভাবে তালা মেরে বর্তমান পরিস্থিতিতে মানুষের স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত করা উচিত হয়নি। ক্লিনিকে তালা মারার ব্যাপারে আমি আমার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গ্রামবাসি জানায়, চান্দুলিয়া এলাকার সুভাষ সরকার ক্লিনিকের জমি দাতা। তার ছেলে হিরণ চাকরি প্রার্থী ছিলেন। ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে আলোচনা করে হিরন ও তার গ্রুপের সদস্যরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। গর্ভবতী মায়েদের প্রসব-পূর্ব ও পরবর্তী সেবা, শিশুর সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা এবং স্বাস্থ্য, পুষ্টি, পরিবার-পরিকল্পনা শিক্ষা ও পরামর্শ প্রদানের লক্ষে গ্রামীণ জনপদের পিছিয়ে পড়া লোকজনদের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া এ কমিউনিটি ক্লিনিকে তালা ঝুলিয়ে দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা।









Leave a reply