সিলেটে বন্যপ্রাণী পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

|

পিটিয়ে হত্যা করা ২টি বড় বাগডাশা, ৬টি শেয়াল ও ১টি বেজি

সিলেট প্রতিনিধি:

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় পিটিয়ে ৯টি বন্যপ্রাণী হত্যার ঘটনায় মামলা করেছে বনবিভাগ। সরেজমিন তদন্ত শেষে শনিবার বিকেলে জৈন্তাপুর থানায় বনবিভাগের সারি রেঞ্জের বিট কর্মকর্তা সাদ উদ্দিন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এতে ২ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও ৭/৮ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার বাদী সাদ উদ্দিন গণমাধ্যমকে জানান, পিটিয়ে প্রাণী হত্যার খবরে শনিবার সকালে জৈন্তাপুরের ফতেহপুর ইউনিয়নের বালিপাড়া গ্রামে তদন্তে যায় বন বিভাগ। এ সময় বনবিভাগ এবং বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ, মৌলভীবাজার এর কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে সরাসরি তদন্তে গিয়ে ৯টি প্রাণী হত্যার প্রমাণ মিলে এবং এর সাথে সম্পৃক্ত দুইজনকে শনাক্ত করা হয়। বালিপাড়া গ্রামের আব্দুল হালিম ও শাহারিয়ার আহমদ সহ ১০/১১ জন যুবক মিলে শুক্রবার সকালে ৬টি শেয়াল ২টি বাগডাশা ও ১টি বেজি লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৫ লাখ টাকা। এরপর প্রাণীগুলোর মরদেহ নদীতে ভাসিয়ে দেয় তারা।

তদন্তে শেষে শনিবার বিকেলে শনাক্ত হওয়া দু’জনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২ অনুযায়ী, বন বিভাগের সারি রেঞ্জের বিট কর্মকর্তা সাদ উদ্দিন বাদী হয়ে জৈন্তাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জৈন্তাপুর থানার ওসি শ্যামল বণিক।

প্রসঙ্গত, সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার ফতেহপুরে শুক্রবার সকালে পিটিয়ে ৯টি প্রাণী হত্যা করে স্থানীয় এলাবাকাসী। এদের মধ্যে ৬টি শেয়াল, ১টি বেজি, ২টি বড় বাঘডাশা রয়েছে। শুক্রবার সকালে ফতেহপুর ইউনিয়নের বালিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার প্রেক্ষিতে তদন্তের পর শনিবার মামলা দায়ের করে বন বিভাগ।









Leave a reply