বলিভিয়ায় মৃত জন্তু জানোয়ারের বাজার

|

বেড়াতে গেলে দুয়েকটা স্যুভেনির প্রায় সবাই নিয়ে আসে। কিন্তু স্যুভেনির হিসেবে একটি মরা শুটকো ব্যাঙ কিংবা পেঁচার পালক কেমন হবে ভাবুন তো একবার!

বলিভিয়ার রাজধানী লা পাজে এমনি অদ্ভুত সব জিনিসের একটি বাজার আছে। বাজারের নামও বলিহারি, মার্কাদো দি লাস ব্রুজাস। অর্থাৎ মরা প্রাণীর মার্কেট। প্রতিদিন সকাল সাতটায় বাজার বসলেই পর্যটকরা হামলে পড়েন এখানে।

বিচিত্র হ্যাট আর আদিবাসি পোশাকে পসরা সাজিয়ে বসেন মহিলা দোকানদাররা। কোকো পাতা দিয়ে ভাগ্য গণনা করেন অনেকে। আর স্থানীয় জীবজন্তুর মরা শুকনো দেহতো আছেই।

বিক্রেতাদের মতে, এসব বিচিত্র জিনিসের সাথে প্রাচীন বিশ্বাস জড়িত। বলিভিয়ানরা সেই বিশ্বাস থেকেই এগুলো কিনে থাকেন। তাদের দেখাদেখি কেনেন বিদেশি পর্যটকরা। সব মিলিয়ে দিন দিন এসব স্যুভেনিরের কদর বাড়ছে।

সবচেয়ে বেশী বিক্রি হয় বাচ্চা লামার শুকনো মৃত দেহ। লামা হল উট জাতীয় প্রানী, যা শুধু দক্ষিন আমেরিকায় পাওয়া যায়। স্থানীয়দের বিশ্বাস, লামা থাকলে ঘরে খারাপ আত্মা আসতে পারেনা।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১৯৭৫ ফিট উপরের এই বাজারে প্রিয় সঙ্গিনীকে নিয়ে গেলে পেচার মূর্তি আনতে ভুলবেন না। কথিত জাদুর পাথরে তৈরী মূর্তি নাকি ভালবাসার স্মারক। এটি সুস্বাস্থ্য ও নির্বিঘ্ন যাত্রা নিশ্চিত করে বলে স্থানীয় মানুষ বিশ্বাস করেন।









Leave a reply