বউ-শাশুড়িকে খুন করে নিজেও করলেন আত্মহত্যা

|

ভারতের বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকে খুন করে বিমানে কলকাতা এসে শাশুড়িকে হত্যা করেন চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট অমিত আগরওয়াল (৪২)। এরপর তিনিও আত্মহত্যা করেন। সোমবার বিকালে ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার ফুলবাগান থানা এলাকার একটি অভিজাত আবাসিক এলাকায়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পুলিশ জানিয়েছে, নিহত শাশুড়ির নাম ললিতা ঢনঢনিয়া (৬০)। স্ত্রী শিল্পীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ মামলা চলছিল অমিতের। বেঙ্গালুরুতে থাকতেন শিল্পী। শিল্পী ও অমিত দুজনেই পেশায় চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট।

শাশুড়িকে খুন করার আগে বেঙ্গালুরুতে স্ত্রীকেও খুন করে আসেন অমিত। ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হওয়া তার সুইসাইড নোট থেকে বিষয়টি জানতে পেরেছে পুলিশ।

সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে অমিত কলকাতায় হঠাৎ করে হাজির হন শ্বশুরের ফ্ল্যাটে। সম্পত্তিসংক্রান্ত কোনো বিষয় নিয়ে অমিতের সঙ্গে বচসা শুরু হয় ৭০ বছরের সুভাষের। সেই বচসার মধ্যে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয় শাশুড়ি ললিতাকে। এ সময় প্রাণ বাঁচাতে ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়ে যান সুভাষ।প্রতিবেশীর ফ্ল্যাট থেকেই থানায় ফোন করেন সুভাষ। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফ্ল্যাটের দরজা খুলে দেখে, ভেতরে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন ললিতা এবং কিছুটা দূরে অমিত।

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা– যে পিস্তল দিয়ে শাশুড়িকে খুন করেছেন, সেই পিস্তল দিয়েই আত্মহত্যা করেছেন অমিত।









Leave a reply