দর্শনার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হলো আইফেল টাওয়ার

|

সর্বশেষ বন্ধ হয়েছিলো দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে। তারপরের ইতিহাস সৃষ্টি করলো করোনাভাইরাস। তিন মাসেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর বৃহস্পতিবার থেকে আংশিকভাবে খুলে দেয়া হয়েছে প্যারিসের বিশ্ববিখ্যাত আইফেল টাওয়ার।

ফ্রান্সে করোনা মহামারী আকারে দেখা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে মে মাসের মাঝামাঝিতে দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয় টাওয়ারটি। তবে বেশ কিছু নির্দেশনাবলী অনুসরণ করে এটি পরিদর্শন করতে হবে।

ফ্রান্স২৪ জানায়, বেশ কয়েকটি শর্ত মেনে চলতে হবে বলেও নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ। শর্তের মধ্যে রয়েছে, আগের মতো এখন টাওয়ারের লিফট ব্যবহার করা যাবে না। ৩০ জুন পর্যন্ত শুধুমাত্র টাওয়ারের দ্বিতীয় তলা পর্যন্ত ওঠা যাবে। যদি পরিস্থিতির অবনতি না হয় তবে ১ জুলাই থেকে লিফট খুলে দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

একইসাথে আগের মতো হাতের নাগালেই টিকেট সরবরাহ থাকছে না। সীমাবদ্ধ কিছু টিকেট প্রতিদিনের জন্য বিক্রি করা হবে। এই মুহূর্তে কাউন্টার থেকে টিকেট না কিনে অনলাইনে টিকেট কেনার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দর্শনের সময়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, টাওয়ারে কর্মরত সব কর্মী মাস্ক পরেই কাজ করছেন। এছাড়া আইফেল টাওয়ারের চার দিকে অন্তত ৩০টি জায়গায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ করা হবে।

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১০ সালে সম্ভাব্য বোমা হামলার আশঙ্কায় আইফেল টাওয়ার দর্শকদের জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়। অনুসন্ধান চালিয়ে কোন বোমা পাওয়া না যাওয়ায় পরদিন আবারও তা খুলে দেয়া হয়। আইফেল টাওয়ার নির্মাণ কাজ শেষ হয় ১৮৮৯ সালে। প্রতি বছর গড়ে সাত মিলিয়ন মানুষ এটি দেখতে যান, যাদের এক-তৃতীয়াংশ বিদেশি পর্যটক।









Leave a reply