ঘুমের ওষুধ খাইয়ে বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা

|

স্টাফ রিপোর্টার, নাটোর
নাটোরের লালপুরে স্ত্রী হত্যার ঘটনায় স্বামী আব্দুল জব্বারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। লালপুরের পুরাতন ঈশ্বরদী গ্রামের ভাদুর বটতলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ের সামনে প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান পুলিশ সুপার।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে গত ১৬ জুলাই মধ্যে রাতে মোহরকয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামে স্ত্রী স্মৃতি খাতুনকে কৌশলে পানির সাথে ১০টি ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে খাওয়ায় স্বামী আব্দুল জব্বার। এরপর স্মৃতি খাতুন অচেতন হয়ে পড়লে আব্দুল জব্বার মুখে বালিশ চাপা দিয়ে তাকে হত্যা করে। মৃত্যু নিশ্চিত করে মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে রাতেই বাড়ির পাশের পুকুরে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় সে। পরদিন সকালে পুকুরের মধ্যে স্মৃতি খাতুনের মরদেহ ভাসতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা তসলিম আলী আব্দুল জব্বারের বিরুদ্ধে লালপুর থানায় মামলা দায়ের করে। পরে তথ্য প্রযুক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে আসামি আব্দুল জব্বারকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর আব্দুল জব্বারকে আদালতে সোপর্দ করা হয় এবং আদালত ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী রেকর্ড করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।









Leave a reply