মাস্ক নেই কেন, প্রশ্ন করতেই কপালে ইটের আঘাত!

|

মুখে মাস্ক নেই কেন, এই প্রশ্ন করে আক্রান্ত হলেন এক বৃদ্ধ! ইটের আঘাতে কপাল ফাটিয়ে রক্তাক্ত করা হল তাকে। শনিবার ভোরে বীরভূমের সদর শহর সিউড়ির স্টেশনবাজার মোড়ে এ ঘটনাটি ঘটেছে। তবে বৃদ্ধ নির্দিষ্ট করে নাম বলতে না পারলেও অভিযুক্তকে চিহ্নিত করে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

৭৩ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধের নাম নির্মল কুমার সিংহ। সেন্ট্রাল কোলফিল্ড লিমিটেড ধানবাদের ওই অবসরপ্রাপ্ত কর্মীর বাড়ি সিউড়ি বিদ্যাসাগর কলেজের কাছে রামকৃষ্ণপল্লিতে। প্রতিদিনের মতো শনিবারও প্রাতঃভ্রমণে বের হয়েছিলেন তিনি। দুধ নিয়ে হেঁটে বাড়ি ফেরার সময় দেখলেন মোড়ে বেশ কিছু লোক মুখে মাস্ক ছাড়াই রয়েছে। তিনি জানতে চাইলেন ‘কেন মাস্ক পরোনি’। এদেরমধ্যে প্রায় সবাই নিজেদের ভুল স্বীকার করে নিলেও দু’জন মানতে চায়নি। এই কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে এক মধ্যবয়সী রাস্তা থেকে ইট কুড়িয়ে তার কপালে ঢিল ছোড়েন। সাথে সাথে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। পরে আহত বৃদ্ধকে সিউড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর তিনি থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন।

পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত করে ফকিরপাড়ার বাসিন্দা অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করে নিয়ে যায়।

তবে অভিযুক্তের পুত্রবধূর দাবি, ‘আমার সন্তান মারা গিয়েছে লকডাউনের ঠিক আগে। তার পর থেকেই শ্বশুরের মন ভাল নেই। সেই জন্যই হয়তো এমনটা করে ফেলেছেন তিনি। অন্যায়ের জন্য আমরা নির্মলবাবুর (আহত বৃদ্ধা) কাছে ক্ষমা চেয়েছি।’

তবে নির্মলবাবু বলছেন, ‘কেউ আমার কাছে আসেনি। পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। যা করার পুলিশ করবে।’ তবে আক্রান্ত হলেও প্রতিবাদের পথ থেকে সরতে নারাজ তিনি। বলেন, ‘আমি প্রতিবাদ করেছি সমাজের স্বার্থে। এর পরেও যদি কাউকে মাস্ক ছাড়া দেখি, একই ভাবে প্রতিবাদ করব।’









Leave a reply