মসজিদে বিস্ফোরণ: চিকিৎসাধীন ১১ জনের মধ্যে ১০ জনই সংকটাপন্ন

|

নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২৬ জন মারা গেছেন। চিকিৎসাধীন ১১ জনের মধ্যে ১০ জনই সংকটাপন্ন। প্রত্যেকেরই শ্বাসনালি, মুখমণ্ডলসহ শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে গেছে। শ্বাসনালি পুড়ে যাওয়ায় তারা কেউ আশঙ্কামুক্ত নন। এদের মধ্যে ৬ জন আছেন আইসিইউতে।

তবে, যারা চিকিৎসাধীন আছেন তাদের অবস্থা গুরুতর হলেও খুব ধীরে উন্নতি হচ্ছে বলে জানান শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন পার্থ শংকর পাল।

এর আগে এ ঘটনায় মসজিদের ইমাম আব্দুল মালেক (৬০) ও মুয়াজ্জিনসহ ২৬ জন মারা গেছেন। সবার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে, নারায়ণগঞ্জের তল্লায় বায়তুস সালাত মসজিদের সামনে গ্যাস সংযোগের মূল লাইন ও বাসাবাড়ির সংযোগ খুঁজতে গর্ত খুঁড়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। সকালে তিতাস গ্যাস নারায়ণগঞ্জ অঞ্চলের উপ-মহাব্যবস্থাপক মফিজুল ইসলামের নেতৃত্বে এ কার্যক্রম শুরু হয়। এসময় গ্যাস সংযোগের মূল লাইন ও বাসাবাড়িতে নেয়া সংযোগ খুঁজে বের করতে ৫টি গর্ত খুঁড়ে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। গর্ত খুঁড়ে লাইন চিহ্নিতের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

একই সময়ে মসজিদ সংলগ্ন সড়কের জলাবদ্ধতা নিরসনে অভিযান চালায় সিটি করপোরেশন। গুঁড়িয়ে দেয়া হয় বেশ কয়েকটি দোকানপাটও। মাটি খুঁড়ে ড্রেন তৈরি করে পানি নিষ্কাশনেরও ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়া অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খাদিজা তাহেরা ববির কার্যালয়ে জেলা প্রশাসনের গঠিত তদন্ত কমিটির গণশুনানি শুরু হয়েছে।

গতকাল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন) লে. কর্নেল জিল্লুর রহমানকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির অপর সদস্যরা হলেন- ঢাকা ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্মণ, উপ-পরিচালক (অপারেশন) নুর হাসান এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আরেফিন। তদন্ত কমিটিকে আগামী ১০ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খাদিজা তাহেরী ববিকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে আগামী ৫ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ঢাকা অফিসের মহাব্যবস্থাপক (জিএম-পরিকল্পনা) আবদুল ওহাব তালুকদারকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। কমিটিকে ৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পৌনে ৯টায় মসজিদের ভেতরে থাকা এসির বিস্ফোরিত হয়। মুহূর্তের মধ্যে মসজিদের ভেতরে থাকা ৩০ থেকে ৪০ জনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। হুড়োহুড়ি করে বের হওয়ার চেষ্টা করেন তারা। তাদের অনেকেই দগ্ধ ও আহত ছিলেন।









Leave a reply