ফেসবুকে প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করাই ছিল তার কাজ! অবশেষে গ্রেফতার

|

একাধিক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে রাজধানীর ভাটারা থানা এলাকা থেকে দেওয়ান রুসুল হৃদয় নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে ভাটারা থানা পুলিশ। তাদের দাবি, এই ব্যক্তি একজন সিরিয়াল রেপিস্ট। সে ফেসবুকে নারীদের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে এনে তাদের ধর্ষণ করতো বলে দাবি পুলিশের। সোমবার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানায়, দেওয়ান রুসুল হৃদয় বিভিন্ন সময় তার সহযোগীদের মাধ্যমে নারীদের বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে নিজ বাসায় নিয়ে আসতো। তারপর সে জোরপূর্বক ভিক্টিমদের ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে এইসব ভিক্টিমদের মধ্যে একজনের দায়ের করা মামলার ১৩ ঘণ্টার মধ্যেই অভিযান চালিয়ে তাকে ভাটারা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার বাদী এক ভুক্তভোগীর অভিযোগ, গত ৯ সেপ্টেম্বর বাবা মাকে না জানিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে তথাকথিত ফেসবুক বান্ধবীর প্রস্তাবে গাজীপুরে পুল পার্টিতে যান তিনি । সেখানেই সিরিয়াল ধর্ষণকারী দেওয়ান রুসুল হৃদয়ের সাথে ফেসবুক বান্ধবী তাদের পরিচয় করিয়ে দেয়। সে তাদের বলে যে, তাদের থাকার কোনো সমস্যা থাকলে দেওয়ান রুসুল হৃদয় তাদের থাকার ব্যবস্থা করে দিবে।

পরবর্তীতে দেওয়ান রুসুল হৃদয় তাদের ফোন দিয়ে ভাটারা থানাধীন কুড়িল প্রগতি সরণির পিনাকল পাম্প সংলগ্ন বাসার নিচ তলার রুমে থাকার ব্যবস্থা করে। তারা সেখানে অবস্থানকালে হৃদয় জোরপূর্বক তাদের ধর্ষণ করে। মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, এরপর আরও দুইজন ভিকটিম একই সহযােগীর মাধ্যমে আসামি দেওয়ান রুসুল হৃদয়ের বাড়িতে আসে। হৃদয় তাদেরও ধর্ষণ করে।









Leave a reply