মিঠুনের ছেলে মিমোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

|

বলিউড সুপারস্টার ও কলকাতার ‘ফাটাকেস্ট’ খ্যাত মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মহাক্ষয় চক্রবর্তী ওরফে মিমোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছেন এক তরুণী। খবর জি-নিউজের।

খবরে বলা হয়, মিমোর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ, প্রতারণা এবং জোর করে গর্ভপাতের অভিযোগ করেছেন ওই তরুণী। অভিযোগ আনা হয়েছে মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালির বিরুদ্ধেও। নির্যাতিতাকে ভয় দেখানোর অভিযোগ আনা হয়েছে যোগিতা বালির বিরুদ্ধে।

গত ১৫ তারিখ মহাক্ষয় চক্রবর্তী মিমো ও যোগিতার বালির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন ওই তরুণী। এফআইআরে লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালে মিমো অভিযোগকারীকে বাড়িতে ডেকে নেন। সেখানে মাদক মিশ্রিত কোমল পানীয় খাইয়ে ওই তরুণীকে অচেতন করেন। সেই সুযোগে মিমো তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেন। এরপর চার বছর ধরে সম্পর্ক ছিল তাদের। এরইমধ্যে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই তরুণী। সে এ কথা জানালে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন। গর্ভপাতের জন্য চাপ দিতে থাকেন। তবে তাতে রাজি হননি তরুণী। তাই না জানিয়ে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত করান মিমো। নির্যাতিতার আরও অভিযোগ, মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালিও তাকে ফোন করে হুমকি দেন।

২০১৮ সালে ৭ জুলাই পরিচালক, প্রযোজক সুভাষ শর্মার মেয়ে মাদালসা শর্মাকে বিয়ে করেন মহাক্ষয় চক্রবর্তী মিমো। ওই সময় নির্যাতিতা তরুণী ধর্ষণের মামলা করার চেষ্টা করলে পুলিশ তা এড়িয়ে যায়। এরপর দিল্লির রোহিণী আদালতে মিমো ও তার মায়ের বিরুদ্ধে একটি মামলা রুজু করেন ওই তরুণী।

প্রাথমিক প্রমাণাদির ভিত্তিতে আদালতের নির্দেশেই এবার ওশিওয়ারা থানায় মিমো ও তার মা যোগিতা বালির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ইউএইচ/









Leave a reply