দিপু, সেলিম ও জাহিদের ৭ দিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ

|

নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধরের ঘটনায় করা মামলায় হাজী সেলিমের প্রটোকল অফিসার এবি সিদ্দিক দিপু, ইরফান সেলিম, তার দেহরক্ষী মো. জাহিদকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে রিমান্ডে নিতে চায় পুলিশ। আজ বিকেলে তাদের ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে তোলা হবে। এই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানায় পুলিশ। 

এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে টাঙ্গাইল শহরে এক বন্ধুর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় দিপুকে। এর আগে এই মামলায় গ্রেফতার হন -ইরফান সেলিম, তার দেহরক্ষী মো. জাহিদ ও গাড়িচালক মিজানুর রহমান। ধানমণ্ডি থানায় দায়ের করা ওই মামলায় এ নিয়ে চারজন গ্রেফতার হলেন।

ইরফান ও তার তিন সহযোগীর বিরুদ্ধে গতকাল সকালে রাজধানীর ধানমণ্ডি থানায় মামলাটি করেন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ।

গত রোববার রাতে স্ত্রীকে নিয়ে মোটরসাইকেলে বাসায় ফিরছিলেন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান। ধানমণ্ডিতে কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত একটি গাড়ি তার মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। ওই গাড়িতে ছিলেন হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান এবং তার লোকজন। 









Leave a reply